সকাল ৬:৪৯, রবিবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / শুরুতেই শাস্ত্রী বিরোধী উপদেষ্টা কমিটি
শুরুতেই শাস্ত্রী বিরোধী উপদেষ্টা কমিটি
জুলাই ১৪, ২০১৭

ভারতীয় কোচ হিসেবে নাম ঘোষণার ৪৮ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ঘোর বিপাকে শাস্ত্রী। সুপারিশ না মেনে নিজের পছন্দের সহকারী চেয়ে বোর্ড প্রধানের কাছে আবেদন জানানোয় শাস্ত্রীর উপর ক্ষুব্ধ সৌরভ গাঙ্গুলি, শচীন টেন্ডুলকার ও ভিভিএস লক্ষণের সমন্বয়ে গড়া তিন সদস্যের উপদেষ্টা কমিটি।
নতুন নিয়োগ পাওয়া ভারতীয় এই কোচের বিরুদ্ধে কাজকর্মে হস্তক্ষেপের অভিযোগ তুলে বোর্ড প্রধান ও সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত পর্যবেক্ষকের দল কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসকে (সিওএ) লিখিত চিঠি পাঠিয়েছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। সঙ্গে আছেন শচীন-লক্ষণও।
লিখিত সেই অভিযোগে তারা জানান, জহির খানকে বোলিং কোচ হিসেবে বেছে নেওয়ার পরও শাস্ত্রী নিজের পছন্দের ভরত অরুণকে বোলিং কোচ করতে চাইছেন। এমনকি সেইজন্য ক্রিকেটের অ্যাডভাইজারি কমিটির কাজেও নাক গলাচ্ছেন। বলা হয়ে থাকে, সৌরভ গাঙ্গুলী শাস্ত্রীকে কোচ হিসেবে বেছে নিতে মোটেই রাজি ছিলেন না। পরে তাকে করানো হয় শাস্ত্রীর সঙ্গে জহির খান, রাহুল দ্রাবিড়কে জুড়ে দিয়ে।

সৌরভ গাঙ্গুলি, ভিভিএস লক্ষণ ও শচীন টেন্ডুলকার (বাম থেকে)।

কিন্তু শাস্ত্রী পরিষ্কার জানিয়েছেন, হেড কোচ হওয়ার সুবাদে তিনি সাপোর্ট স্টাফ নিয়োগের অধিকারী। ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবর অনুযায়ী, কোচ নির্বাচিত হওয়ার পর শাস্ত্রী তার পুরনো কোচিং স্টাফ ফেরানোর জন্য চেষ্টা করেন।
প্রথমবার যখন শাস্ত্রী কোচ ছিলেন তখন ব্যাটিং কোচ ছিলেন সঞ্জয় বাঙ্গার এবং বোলিং কোচ ছিলেন ভরত অরুণ। বিষয়টি মোটেই ভালোভাবেই নেননি শচিন-সৌরভ-লক্ষণরা। তারা সরাসরি কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স ও বোর্ড প্রধানকে মেইল করে পুরো বিষয়টা জানিয়েছেন।
আগামী ১৫ জুলাই শনিবার বোর্ডের প্রশাসকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার কথা শাস্ত্রীর।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :