রাত ৮:৪৪, সোমবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / নির্বাচকদের অপেক্ষা
নির্বাচকদের অপেক্ষা
জুলাই ৭, ২০১৭

এক বছর আগে মিনহাজুল আবেদীন নান্নুকে প্রধান করে যাত্রা শুরু করেছিল জাতীয় ক্রিকেট দলের নির্বাচক কমিটি। সহযোগী হিসেবে ছিলেন হাবিবুল বাশার সুমন ও সাজ্জাদ আহমেদ শিপন। তবে গেল বছর নির্বাচক কমিটিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি নতুন একটি মাত্রা যোগ করে। এ কমিটিতে রাখা হয় জাতীয় দলের প্রধান কোচ হাথুরুসিংহে ও ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে। জাতীয় দল নির্বাচনের সময় ভূমিকা রাখেন তারাও। এই নিয়ে মতপার্থক্যেক কারণে আগের প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদের পদত্যাগের পরই তার কমিটিতে থাকা মিনহাজুলকে প্রধান নির্বাচক করা হয়। গেল ৩০শে জুন সেই নির্বাচক কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তাই নির্বাচকরা অপেক্ষায় আছেন নতুন চুক্তির জন্য। এক সপ্তাই পার হলেও বিসিবি নীরব। প্রশ্ন উঠেছে আগের কমিটিই বহাল থাকবে নাকি নতুন কেউ আসবে? এই বিষয়ে নান্নু বলেন, ‘আমাদের এক বছরের চুক্তি শেষ হয়ে গেছে। এখন নতুনভাবে চুক্তির অপেক্ষায় আছি। কোনো পরিবর্তন হবে কি না তা বোর্ড বলতে পারবে। সাধারণত বোর্ড সভাতেই সিদ্ধান্ত হয় এ সব বিষয়ে। কিন্তু যতটা জানি দ্বিপক্ষীয় সমঝোতার মাধ্যমে হলে, বোর্ড সভাপতি অনুমোদন দিলে এমনিতেই হয়ে যাবে। আশা করি কয়েক দিনের মধ্যেই হবে।’
তিনি বলেন, ‘কবে চুক্তি হবে জানিনা। যতটা শুনেছি খুব দ্রুতই চুক্তি হবে। তার আগে বোর্ড হয়তো আমাদের সঙ্গে কথাও বলবে। এই বিষয়ে আসলে বলতে পারবে বোর্ডের প্রধান নির্বাহী (সিইও)।’
এ বিষয়ে বিসিবির সিইও নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘আমাদের নির্বাচকদের সঙ্গে চুক্তি ছিল একবছরের। তা শেষ হয়ে গেছে। এখন আমরা চুক্তি নতুনভাবে করার প্রক্রিয়া শুরু করেছি। দ্বিপক্ষীয় সমঝোতার মাধ্যমেই চুক্তি হবে, সেজন্য হয়তো বোর্ড সভার প্রয়োজন হবে না। দ্রুতই চুক্তি হয়ে যাবে।’
নির্বাচক কমিটিতে রদবদল হচ্ছে নাকি আগের কমিটিই থাকছে এই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান সিইও। তিনি বলেন, ‘এটি আসলে এখনই বলা যাবে না। বলতে পারি দ্রুতই চুক্তি হয়ে যাবে।’ অবশ্য দ্বিপক্ষীয় সমঝোতার মধ্যে হলে রদবদলের তেমন সুযোগও নেই।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :