রাত ৪:৪২, বৃহস্পতিবার, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সিনেমা দেখিয়ে শিষ্যদের তাতালেন জিদান
সিনেমা দেখিয়ে শিষ্যদের তাতালেন জিদান
জুন ৩, ২০১৭

ইউরোপিয়ান শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে মাঠে নামার আগে রিয়াল মাদ্রিদ এবং জুভেন্তাসের কোচরা শিষ্যদের নানাভাবে তাতিয়ে তোলার চেষ্টা ব্যস্ত। একএকজন অবলম্বন করছেন একেক পদ্ধতি। রিয়াল মাদ্রিদ ম্যানেজার জিনেদিন জিদান কী পদ্ধনিত অবলম্বন করছেন?

হয়তো খুব কম মানুষই জানেন, কথার চেয়ে কাজে বেশি বিশ্বাসী জিদান। তিনি কথা কম বলেন। কোনো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে তো কথাই বলতে চান না। তবে তিনি দলকে ভিন্ন উপায়ে এমনভাবে উদ্বুদ্ধ করেন, যেটা খুব কার্যকরী এবং সে কার্যকরিতার ফল এখনও পর্যন্ত পেয়ে আসছে রিয়াল মাদ্রিদ।

‘রিয়ালের ডিএনএ-তেই জয় আছে’- এমন কথা বলার থেকে শুরু করে রোনালদোকে বিশ্বসেরা দাবি করা। জিদান ভালমতোই জানেন কীভাবে, ফুটবলারদের থেকে সেরাটা বের করে আনা যায়।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের আগেও সবার নজর ছিল জিদান কীভাবে তার দলের ফুটবলারদের উদ্বুদ্ধ করেন, সেদিকে। এবারও খুব বেশি কথা বললেন না তিনি। বরং কার্ডিফ ফাইনালের আগে ফুটবলারদের ভিডিও দেখালেন ফরাসি ম্যানেজার। তাও আবার এমন এক ভিডিও যেখানে এক লক্ষ সৈন্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে ইতিহাস গড়বেন মাত্র ৩০০জন।

হ্যাঁ, সেই বিখ্যাত যুদ্ধের সিনেমা (থ্রি হান্ড্রেড) ৩০০- এর কিছু দৃশ্য দেখিয়েই রিয়াল ফুটবলারদের তাতিয়ে তুলতে চাইলেন জিদান। আবার সিনেমাটির প্রধান চরিত্র লিওনিডাসের মুখে নিজের বলা সংলাপও জুড়ে দেন জিদান। যেখানে তিনি বলেন, ‘বাকি বিশ্ব যখন তোমার বিরুদ্ধে তখন কাজটা হবে তাদের ভুল প্রমাণ করা।’

ম্যাচের আগে অবশ্য রিয়াল জুড়ে টেনশনের চোরাস্রোত বয়ে যাচ্ছে। তার আসল কারণ ইস্কো বনাম গ্যারেথ বেল। দুই তারকার মধ্যে প্রথম একাদশে কে থাকবেন এখন সেটাই প্রশ্ন? গোটা মৌসুম যেখানে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন ইস্কো। চোটের জন্য বেল অর্ধেক সময় কাটিয়েছেন ডাক্তারের চেম্বারে, সেখানে প্রথম একাদশে কাকে রাখবেন সেটাই জিদানের কাছে সবচেয়ে বড় ধাঁধা।

রিয়ালের ফরাসি ম্যানেজারের আর এক চিন্তা গঞ্জালো হিগুয়াইন। জুভেন্তাস স্ট্রাইকার এক সময় ছিলেন রিয়ালের উঠতি তারকা। রিয়ালকে লা লিগা জিততে সাহায্য করেছিলেন হিগুয়াইন। লস ব্ল্যাঙ্কোজ জার্সিতে হয়ে উঠেছিলেন ফুটলবিশ্বের সেরা প্রতিভাদের মধ্যে একজন।

ন্যাপোলি থেকে জুভেন্তাসে সই করার পরে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন হিগুয়াইন। ইতালিয়ান সিরি আ-য় গোলের পর গোল করছেন। আবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালেও মোনাকোর বিরুদ্ধে জোড়া গোল করেছিলেন। ফাইনালের চব্বিশ ঘণ্টা আগে হিগুয়াইন জানিয়ে দিলেন ফাইনালে খারাপ রেকর্ড পাল্টাতে তিনি বদ্ধপরিকর। ‘বিশ্বকাপে মারাকানার ফাইনালে খুব খারাপ খেলেছিলাম; কিন্তু আমি জুভেন্তাসের হয়ে ইতিহাস গড়তে তৈরি। আশা করছি ফাইনালে জিতব,’ বলছেন হিগুয়াইন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :