রাত ৮:৩৫, সোমবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি / সাকিব-মোস্তাফিজের অন্যরকম প্রতিশোধ ম্যাচ!
সাকিব-মোস্তাফিজের অন্যরকম প্রতিশোধ ম্যাচ!
জুন ১৪, ২০১৭

প্রথমবারের মতো আইসিসির মেগা টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। মিনি বিশ্বকাপ খ্যাত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে টাইগারদের প্রতিপক্ষ প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত। ম্যাচটি সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানের জন্য অন্যরকম প্রতিশোধের! আবার নিজেদের প্রমাণেরও। কীভাবে?

শ্রীলঙ্কা সফর শেষে সরাসরি আইপিএলের দশম আসরে অংশ নিতে ভারত চলে যান সাকিব। আর মোস্তাফিজ খেলতে যান দেশ ঘুরে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অনাপত্তিপত্র নিয়ে। আইপিএলকে এত গুরুত্ব দিয়ে ভারত যাওয়ার পর বলতে গেলে হতাশার একটি টুর্নামেন্ট কেটেছে বাংলাদেশের এই দুই ক্রিকেটারের। ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন মাত্র একটি করে!

ম্যাচের পর ম্যাচ বাংলাদেশের তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে বসিয়ে রেখেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) এবং বাঁ-হাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমানকে সুযোগ দেয়নি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। অথচ এই দুই ক্রিকেটারের অনন্য অবদানে শিরোপা জিতেছিল দল দুটি।

প্রথমবারের মতো আইপিএলে খেলতে গিয়ে বাজিমাত করেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। আইপিএলের নবম আসরে হায়দরাবাদের হয়ে বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই। কাটার-স্লোয়ার-ইয়র্কারের সংমিশ্রণে দুর্দান্ত বোলিং করে সুনাম কুড়িয়েছেন।

১৬ ম্যাচে ২৪.৭৬ গড়ে নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট। আর তাতেই প্রথমবারের মতো আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হায়দরাবাদ। ওই আসরে সেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের পুরস্কারও জেতেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ।

আবার কেকেআর দুবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। সেই দুবারই ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেন সাকিব আল হাসান। অথচ সেই সাকিবই এবার কেকেআরে ব্রাত্যই থেকে গেলেন।

ভারতের বিপক্ষে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ আগেই দিয়েছেন সাকিব-মোস্তাফিজ। এই ভারতের বিপক্ষেই অভিষেক ঘটে মোস্তাফিজের। প্রথম ম্যাচেই নেন ৬ উইকেট। ওই ম্যাচে একাই তো ভারতকে উড়িয়ে দেন কাটার মাস্টার। পরের ম্যাচেও নেন ৫ উইকেট। ভারতের ত্রাস হয়ে এবারও দেখা দেবেন মোস্তাফিজ; এমনটাই প্রত্যাশা টাইগার ভক্তদের।

এছাড়া ২০০৭ সালে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে পরাজিত হয়ে বড় সর্বনাশ হয়েছিল ভারতের। ভারতের সর্বনাশ ডেকে আনা চার ক্রিকেটারের একজন সাকিব। তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম ও মাশরাফি বিন মর্তুজার সঙ্গে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেন তিনি। দারুণ এক ফিফটি করে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন এই অলরাউন্ডার।

উপেক্ষিত হওয়ার জবাব দেয়ার মোক্ষম সুযোগ এখন বাংলাদেশের এই দুই ক্রিকেটারের সামনে। প্রতিশোধের মিশনে নেমে সাকিব ও মোস্তাফিজ নিজেদের সেরাটাই উজাড় করে দিতে চাইবেন। এই দুই ক্রিকেটারের দিকে তাকিয়ে গোটা বাংলাদেশ। সাকিব-মোস্তাফিজ আপন মহিমায় জ্বলে উঠতে পারলে ভারতের বিপক্ষে জয় পাওয়াটা সহজ হবে টাইগারদের। দেখা যাক, বাংলাদেশের এই দুই সেরা তারকা কী করেন!



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :