সন্ধ্যা ৭:৫০, মঙ্গলবার, ২৭শে জুন, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / যে ভুলে হারতে হলো ভারতকে
যে ভুলে হারতে হলো ভারতকে
জুন ১৯, ২০১৭

ভারতই জিতবে। ফাইনাল শুরুর আগে এমনই মনে করছিল সবাই। ভারত জয়ের মঞ্চও যেন তৈরি ছিল। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে যেভাবে পাকিস্তানকে হারিয়েছিল ভারত, তাতে মনে করা হচ্ছিল, ফাইনালে ভারত আসবে, দেখবে, আর জয় করবে। কিন্তু হল ঠিক তার উল্টো।

আইসিসি র‌্যাংকিংয়ে আট নম্বরে থাকা পাকিস্তান দল ব্যাটে-বলে পুরোপুরি নাস্তানাবুদ করে ছাড়ল বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোংকে। ১৮০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে ভারতকে।

ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম থেকেই আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তান। কখন কী করে বসবে তারা, কেউ জানে না। এমনকি নিজেরাও জানে না এটা। নিজেদের দিনে যে কোনও পরাশক্তিকে হারিয়ে চমকে দিতে পারে পুরো বিশ্বকে। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে হলও তাই। ব্যাটে-বলে পরাক্রমশালী ভারতকে হেলায় হারিয়ে প্রথমবার আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ঘরে তুলল পাকিস্তান।

ভারত যেন অসহায় আত্মসমপর্ণ করল পাকিস্তানের সামনে। এমন পরাজয়ের মূল কারণ কি ছিল? কোথায় ভুল ছিল ভারতের? ভারতীয় কয়েকটি মিডিয়া খুঁজে বের করেছে সেই ভুলগুলো। একনজরে দেখে নেওয়া যাক গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি কারণ…

ভুল দল নির্বাচন 
ইংল্যান্ডের আবহাওয়ায় বল নড়াচড়া করে। তা সত্ত্বেও প্রথম দুটি ম্যাচের পরই দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ থেকে দুই স্পিনারে খেলার সিদ্ধান্ত নেয় বিরাট কোহলির দল। উমেশ যাদবকে বসিয়ে, মোহাম্মদ শামিকে একটিও ম্যাচ না খেলিয়ে ভুবনেশ্বর কুমার ও জসপ্রিত বুমরাহকে খেলানো হয়েছে। বেশিরভাগ ম্যাচেই পাটা উইকেট হলেও ফাইনালের পিচে কিছুটা বাউন্স ছিল। আর পাকিস্তান ব্যাটসম্যানরা গোটা টুর্নামেন্টেই শর্ট বলে বেশি আউট হয়েছে জেনেও উমেশ বা শামিকে না খেলিয়ে রবিচন্দ্রণ অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজাকে খেলানো হল। পাকিস্তান স্পিন ভালো খেলে জেনেও কোনো হোমওয়ার্ক করেনি টিম ইন্ডিয়া।

 

টসে জিতে ফিল্ডিং 
পাটা ব্যাটিং উইকেটে টসে জিতেও বিরাট কোহলি ফিন্ডিং নেন। এত বড় ম্যাচে সাধারণত বড় রান করে প্রতিপক্ষকে চাপে ফেলার চেষ্টা করা হয়। সবাই ভেবেছিলেনও, কোহলি টসে জিতলে ব্যাটিং নেবেন। কারণ পাকিস্তানের ব্যাটিং দুর্বল। স্কোরবোর্ডে ভালো রান তুলে ফেলতে পারলে ম্যাচ এমনিতেই পকেটে চলে আসত। এই পাকিস্তান দল অনভিজ্ঞ। এত বড় ম্যাচে চাপ এরকম চাপ আগে নেয়নি। তা সত্ত্বেও ভুল করল টিম ম্যানেজমেন্ট। টসে জিতে ফিল্ডিং নিয়ে ম্যাচটাই তুলে দিল পাকিস্তানের হাতে।

অনেক বড় রানের বোঝা 
ভারতের বাজে বোলিংয়ের সুবাদে পাকিস্তান নির্ধারিত ৫০ ওভারে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৩৮ রান করে। এতবেশি রান তাড়া করে আইসিসি টুর্নামেন্টে এর আগে কোনও দল জেতেনি। আর ফাইনালে তো নয়ই। আর ভারতও সেই রানের বোঝার নিচে চাপা পড়ল। ১৮০ রানের লজ্জার হার হারতে হল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের কাছে।

মিডল অর্ডারের ব্যর্থতা 
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিজুড়ে ভারতের প্রথম তিনজন ব্যাটসম্যানই অসাধারণ পারফরম্যান্স করে দেখিয়েছেন। শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলি ফাইনালের আগ পর্যন্ত ব্যাট হাতে দলকে টেনে নিয়ে তুলেছেন। ব্যাট হাতে কোনও না কোনও ম্যাচে এই তিনজনই জিতিয়েছেন। মিডল অর্ডারকে কখনও চাপের মুখে পড়তে হয়নি। অথচ ফাইনালে যখন এই তিনজন ব্যর্থ হলেন এবং প্রয়োজন পড়ল মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের। তখন যুবরাজ সিং, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার যাদবরা মুখ থুবড়ে পড়লেন। মিডল অর্ডারের ব্যর্থতাই এত বড় লজ্জার হারের মুখোমুখি করল ভারতীয় দলকে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :