সন্ধ্যা ৬:৪১, বৃহস্পতিবার, ২০শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি / ম্যাচ পরিত্যাক্ত তবে টিকে রইলো বাংলাদেশ
ম্যাচ পরিত্যাক্ত তবে টিকে রইলো বাংলাদেশ
জুন ৬, ২০১৭

অস্ট্রেলিয়ার কাছে নিশ্চিত পরাজয় থেকে বাংলাদেশকে বাঁচালো বৃষ্টি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচটি পরিত্যাক্ত। তাতে মাশরাফিরা পেলো অনাকাক্সিক্ষত এক পয়েন্ট। এক ম্যাচ হাতে রেখেই টুর্নামেন্ট থেকে প্রায় বিদায় নিতে যাওয়া বাংলাদেশও এখন দেখছে সেমিফাইনালে ওঠার স্বপ্ন।
গ্যালারির দর্শকের বেশিরভাগই চলে যান বৃষ্টি শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই। একবার থেমেও গিয়েছিলো। খেলা শুরুর প্রক্রিয়াও চলছিলো। কিন্তু পরেরবারের বৃষ্টি আর খেলা হতেই দেয়নি। তাতে টিকে রইল বাংলাদেশ।
ওভালে মেঘ মাথায় নিয়েই শুরু হয় খেলা। কারণ আগেই জানা ছিলো বৃষ্টি হওয়ার কথা। ব্যাটিং নিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রথম ৫ ওভার কাটে অঘটন ছাড়াই। এরপর হেজেলউডের লেজে নাড়া দিতে গিয়ে নিজেই সাজঘরে সৌম্য সরকার। জাতীয় দলে নিজের জায়গা পাওয়াকে আবারো প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিলেন ইমরুল। মুশফিকুর রহিমও লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ফিরলেন প্যাভিলিয়নে। তবে রিভিউ নিলে তিনি হয়তো বেঁচেও যেতেন। ৫৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ তখন ব্যাকফুটে।
চতুর্থ উইকেটে সাকিব-তামিমের ৬৯ রানে লড়াইয়ে ফেরার চেষ্টা টাইগারদের।২৯ রান করে বিদায় নেন সাকিব। সাব্বির রহমান, মাহমুদুল্লাহও দলে অবদানরাখতে পারলেন না। তবে একাই অজি বোলারদের শাসন করেন তামিম ইকবাল। শেষ ছয় ম্যাচের মধ্যে চতুর্থ ফিফটি পাওয় তামিমের ইনিংসটি থামে ৯৫ রানে। তার বিদায়েই ভেঙে পড়ে বাংলাদেশ। দলের স্কোরে আর মাত্র ১ রান যোগ হতেই প্যাভিলিয়নে চার ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশ অলআউট ১৮২ রানে।
নতুন বলে মাশরাফি ও মুস্তাাফিজ খারাপ করেননি। বেশ কয়েকবারই বিপাকে ফেলেন ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চকে। তবে আউট করা যায়নি তাদের। রুবেল এসেই ফেরান ফিঞ্চকে। তাতে প্রভাব পড়ে সামান্যই। ডেভিড ওয়ার্নার ও স্মিথ দলকে জয়ের পথেই রেখেছিলেন। কিন্তু বৃষ্টি থামিয়ে দেয় অজিদের।
১৬ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার রান তখন ১ উইকেটে ৮৩। বৃষ্টিতে খেলা আর হতেই পারেনি।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ: ১৮২ (তামিম ৯৫, সৌম্য ৩, ইমরুল ৬, মুশফিক ৯, সাকিব ২৯, সাব্বির ৮, মাহমুদুল্লাহ ৮, মিরাজ ১৪, মাশরাফি ০, রুবেল ০, মুস্তাফিজ ১*; স্টার্ক ৪/২৯)।
অস্ট্রেলিয়া: ৮৩/১ (ওয়ার্নার ৪০*, ফিঞ্চ ১৯, স্মিথ ২২*; রুবেল ১/২১)।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :