রাত ২:২৯, শনিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / ইংলিশদের কাছে পাত্তাই পেলো না দক্ষিণ আফ্রিকা
ইংলিশদের কাছে পাত্তাই পেলো না দক্ষিণ আফ্রিকা
জুন ২২, ২০১৭

সিরেজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের কাছে কোনো পাত্তাই পেলো না দক্ষিণ আফ্রিকা। সাউদাম্পটনে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে প্রোটিয়াদের ৯ উইকেটে হারিয়ে ১-০ তে এগিয়ে গেলো ইংলিশরা।
চ্যাম্পিয়নস ট্রফির গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ার ক্ষত এখনো দগদগে। দক্ষিণ আফ্রিকার সেই ক্ষতে এবার নুনের ছিটা দিল ইংল্যান্ড। রোজ বোলে গতকাল প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ইংলিশদের কাছে প্রোটিয়ারা পাত্তাই পায়নি।
ইংল্যান্ডের সামনে লক্ষ্য ছিল ১৪৩ রানের। মাঝারি সেই লক্ষ্যটাকে মামুলি বানিয়ে ফেলেন তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান জেসন রয়, অ্যালেক্স হেলস ও জনি বেয়ারস্টো। উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলেন রয়। পঞ্চম ওভারের প্রথম বলে ফেরার আগে ১৪ বলে ২৮ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন ডানহাতি ওপেনার। ইংল্যান্ডের স্কোর তখন ১ উইকেটে ৪৫।

বাকি কাজটা করেন হেলস ও বেয়ারস্টো। দুজনের অবিচ্ছিন্ন ৯৮ রানের জুটিতে ৩৩ বল বাকি থাকতে জয় পায় ইংল্যান্ড। প্রায় এক বছর পর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে নামা বেয়ারস্টো ৩৫ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ৬০ রানের ইনিংস খেলেন। ৩৮ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত ছিলেন হেলস।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৭ বলেই দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার জেজে স্মুটস ও রেজা হেনড্রিকস সাজঘরে ফেরেন। ২৫ বলের মধ্যে ৩২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে প্রোটিয়ারা। সেখান থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহটা যে শেষ পর্যন্ত ১৪২ হয়েছে, সেটা মূলত অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স ও ফারহান বেহারদিয়েনের কল্যাণে। দুজন অবিচ্ছিন্ন তৃতীয় জুটিতে যোগ করেন ১১০ রান। তবে এ জুটি খেলেছে প্রায় ১৬ ওভার। ডি ভিলিয়ার্স ৬৫ ও বেহারদিয়েন ৬৪ রানে অপরাজিত ছিলেন।
ইংল্যান্ডের দুই পেসার ডেভিড উইলি ও মার্ক উড উইকেট নিয়েছেন তাদের প্রথম বলেই। আর মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকাকে চেপে ধরে স্পিনাররা। হাম্পশায়ারের দুই স্পিনার লিয়াম ডসন ও ম্যাসন ক্রেন ৮ ওভারে খরচ করেছেন মাত্র ৪১ রান। টনটনে পরের ম্যাচ হবে শুক্রবার।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :