সকাল ৮:৩২, শুক্রবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সানির ভাবনায় নেই জাতীয় দল
সানির ভাবনায় নেই জাতীয় দল
মে ১০, ২০১৭

তাসকিন আহমেদের মতো বোলিং অ্যাকশন শুধরে ক্রিকেট মাঠে ফিরেছেন ঠিকই। কিন্তু এখনও জাতীয় দলে ফিরতে পারেন নি আরাফাত সানি। কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের স্পষ্ট কথা, ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো না খেললে সানির জাতীয় দলে ফেরার সুযোগ নেই। এই বাঁহাতি স্পিনারের চিন্তা-চেতনায় অবশ্য জাতীয় দল নেই আপাতত।
এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। স্পিনের মায়াজালে ব্যাটসম্যানদের বিভ্রান্ত করে তিনি ৮ ম্যাচে নিয়েছেন ২২ উইকেট। এখন নিশ্চয়ই জাতীয় দলে ফেরার কথা ভাবছেন? বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে এমন প্রশ্নে সানির জবাব, আমি এক ফোঁটাও হতাশ নই। একজন খেলোয়াড়ের জীবনে এমন (দল থেকে বাদ পড়া) হতেই পারে। অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায় নিয়ে বাদ পড়েছিলাম। অ্যাকশন শোধরানোর পর পারফরর্ম করেই আমাকে দলে জায়গা করে নিতে হবে। লিগে সবচেয়ে বেশি উইকেট নিতে পারলে হয়তো (জাতীয় দলের) দরজা খুলে যাবে আমার জন্য। নতুন অ্যাকশনে বোলিং আরও কার্যকর হয়েছে বলে মনে করেন সানি। তার অভিমত, নতুন অ্যাকশনে বোলিং করা বেশ কঠিন ছিল আমার জন্য। তবে অভ্যস্ত হওয়ার পর বুঝতে পারছি, আগের চেয়ে টার্ন অনেক বেশি পাচ্ছি। গ্রিপও আগের চেয়ে ভালো হচ্ছে।
এবারের জাতীয় ক্রিকেট লিগে ঢাকা মেট্রোর হয়ে চারটি ম্যাচ খেলেছিলেন সানি। সাফল্য মোটামুটি, উইকেট নিয়েছিলেন ১০টি। তবে ওই চার ম্যাচে ১১৬ ওভার বল করে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন বলে মনে করেন তিনি। জানান, আমি ভাগ্যবান, অ্যাকশন শুধরে ফেরার পর জাতীয় লিগের চারটা ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছি। বড় দৈর্ঘ্যের ম্যাচ বলে সেখানে ওভারের কোনও লিমিটেশন ছিল না। একটানা বোলিং আমাকে অনেক সাহায্য করেছে। প্রাইম দোলেশ্বরকে প্রতিনিধিত্ব করা সানি এখন লিগের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। সামনের ম্যাচগুলোতে সাফল্য ধরে রাখার প্রত্যাশা তার কণ্ঠে, এখন পর্যন্ত আমি লিগের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। লিগ পর্বের তিনটি ম্যাচ বাকি। সুপার লিগে খেলার সুযোগ পেলে আরও পাঁচটা ম্যাচ পাবো। আপাতত শীর্ষে আছি বলে খুব ভালো লাগছে। চেষ্টা করব নিজের সেরাটা দেওয়ার।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :