সকাল ৭:৪৬, শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / মাহমুদউল্লাহ-তামিমে এগোচ্ছে বাংলাদেশ
মাহমুদউল্লাহ-তামিমে এগোচ্ছে বাংলাদেশ
মে ১২, ২০১৭

৭০ রানেই চার উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ। ব্যাটিং বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছে সফরকারীরা। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও তামিম ইকবালের ব্যাটে এগোচ্ছে বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে পঞ্চম উইকেট জুটিতে ফিফটি করে ফেলেছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মাহমুদউল্লাহ-তামিম মিলে গড়েছেন ৫২* রানের জুটি। বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১২২ রান।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামে সাকিব আল হাসানের দল। সূচনাটা ভালো হয়নি টাইগারদের। শুরুতেই সৌম্য সরকারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে সফরকারীরা। তামিম ইকবালের সঙ্গে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন সৌম্য। ৭ বল মোকাবেলা করেছেন এই ওপেনার। একটি বাউন্ডারিতে ৫ রান করতেই পিটার চেজের বলে নেইল ও’ব্রেইনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য।

প্রস্তুতি ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন সাব্বির রহমান। কিন্তু মূল লড়াইয়ে এসে বাংলাদেশকে হতাশ করেছেন তিনি। ৩ বল খেলেও দলের স্কোরশিটে কোনো রানই যোগ করতে পারেননি। পিটার চেজের বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে সাব্বির ধরা পড়েন টিম মুরতাগের হাতে।

মুশফিকুর রহীমও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। টাইগারদের অন্যতম ভরসা আজ থেমেছেন ১৩ রানে। ব্যারি ম্যাকআর্থির বল থার্ডম্যান অঞ্চলে কাট করতে গিয়ে স্লিপে গ্যারি উইলসনের হাতে ধরা পড়েন মুশফিক। ১৭ বলে তিনটি চারের মারে ইনিংসটি সাজান মুশফিক।

এরপর আয়ারল্যান্ডের বোলারদের তোপে পড়েছে বাংলাদেশ। শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে সফরকারীরা। সেই বিপর্যয় কাটিতে উঠতে হাল ধরতে পারতেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। কিন্তু পারেননি। ১৬ বলে দুটি চারের সাহায্যে ১৪ রান করতেই পিটার চেজের শিকারে পরিণত হন। দলীয় ৭০ রানের মাথায় আইরিশ উইকেটরক্ষক নেইল ও’ব্রেইনের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাকিব প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন এক রাশ হতাশা উপহার নিয়ে।

এদিকে ডাবলিনের দ্য ভিলেজ স্টেডিয়ামে গড়ানো ম্যাচটিতে টস নামক ভাগ্য পরীক্ষায় জিতেছেন আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। টস জিতে প্রথমে তিনি ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সাকিব আল হাসানের বাংলাদেশকে পাঠিয়েছেন ব্যাটিংয়ে।

এই ম্যাচে খেলতে পারছেন না টাইগারদের নিয়মিত অধিনায়ক মাশরাফি। নিষেধাজ্ঞার কারণে একাদশের বাইরে থাকতে হচ্ছে নড়াইল এক্সপ্রেসকে। দলের জন্য শুভকামনা থাকছে মাশরাফির। তার পরিবর্তে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাকিব।

এই সিরিজের আগে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। সাসেক্সে দুটি। আয়ারল্যান্ডে একটি। তিনটি ম্যাচেই তিনশোর্ধ্ব রান করেছে বাংলাদেশ। কোনো ম্যাচেই হারেননি মুশফিকরা। বৃষ্টিতে একটি ম্যাচ হয়েছে পণ্ড। আর বাকি দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

সর্বশেষ প্রস্তুতি ম্যাচে আয়ারল্যান্ড উলভসের মুখোমুখি হয় মাশরাফির দল। ম্যাচটিতে ১৯৯ রানে জিতেছে বাংলাদেশ। সাব্বির রহমানের সেঞ্চুরি (৮৬ বলে ১০০) ও তামিম ইকবালের দুর্দান্ত ফিফটিতে (৭৪ বলে ৮৬) ভর করে ৭ উইকেটে ৩৯৪ রান তোলে সফরকারীরা। জবাবে ৪১.২ ওভারে ১৯৫ রানে অলআউট হয় উলভস।

ত্রিদেশীয় সিরিজটা বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এই সিরিজে ভালো করতে পারলে র্যাংকিংয়ে এগিয়ে যাবেন টাইগাররা। প্রথমবারের মতো ওয়ানডে র্যাংকিংয়ের ষষ্ঠ স্থানে ওঠার হাতছানি বাংলাদেশের সামনে। তার জন্য আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ম্যাচ জিততেই হবে মাশরাফি-সাকিবদের। ৯১ রেটিং নিয়ে বর্তমানে টাইগারদের অবস্থান সপ্তম।

বাংলাদেশ একাদশ : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মুশফিকুর রহীম (উইকেটরক্ষক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

আয়ারল্যান্ড একাদশ : উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড (অধিনায়ক), পল স্টার্লিং, নেইল ও`ব্রেইন, অ্যান্ড্রু বালবিরনি, স্টুয়ার্ট থম্পসন, গ্যারি উইলসন. কেভিন ও`ব্রেইন, জর্জ ডকরেল, ব্যারি ম্যাকআর্থি, টিম মুরতাগ ও পিটার চেজ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :