সন্ধ্যা ৬:৫৮, বৃহস্পতিবার, ২৭শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / হায়দ্রাবাদকে হারালো কলকাতা
হায়দ্রাবাদকে হারালো কলকাতা
এপ্রিল ১৬, ২০১৭

আইপিএলের ১৪তম ম্যাচে মাঠে নেমেছিল সাকিব আল হাসান ছাড়া কলকাতা নাইট রাইডার্স আর মোস্তাফিজুর রহমান ছাড়া ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হায়দ্রাবাদকে ১৭ রানে হারিয়েছে কলকাতা।

হায়দ্রাবাদের দলপতি ডেভিড ওয়ার্নার টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে কলকাতা ১৭২ রান তোলে। জবাবে, ২০ ওভার ব্যাট করে ৬ উইকেট হারানো হায়দ্রাবাদের ইনিংস থামে ১৫৫ রানের মাথায়।

কলকাতার ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেনসে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে চারটায় ম্যাচটি শুরু হয়। একাদশে সুযোগ পেলে মোস্তাফিজের মুখোমুখি হতেন সাকিব। এবারের আইপিএল আসর এখনো জমাতে পারেননি এই দুই টাইগার। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে শুরুটা ভালো হয়নি ‘কাটার মাস্টার’ মোস্তাফিজুর রহমানের। এদিকে, টানা চার ম্যাচে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবকে ডাগআউটে বসিয়ে রেখে একাদশ সাজায় শাহরুখ খানের কেকেআর। মোস্তাফিজের নিজের প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্স সবাইকে রীতিমতো অবাকই করেছে। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে স্বাগতিক মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে (১২ এপ্রিল) তার বোলিং ছিল খরুচে। ২.৪ ওভারে ৩৪ রানের বিনিময়ে একটি উইকেটও পাননি।

ব্যাটিংয়ে কলকাতার ওপেনার গৌতম গম্ভীর করেন ১৫ রান। আরেক ওপেনার সুনীল নারাইন ৬ রানে বিদায় নেন। তিন নম্বরে নামা রবীন উথাপ্পা ৩৯ বলে ৫টি চার আর ৪টি ছক্কায় করেন ৬৮ রান। মনিষ পান্ডের ব্যাট থেকে আসে ৪৬ রান। ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন ইউসুফ পাঠান।

হায়দ্রাবাদের হয়ে ৪ ওভারে ২০ রান খরচায় তিনটি উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার। একটি করে উইকেট দখল করেন ৪ ওভারে ৩৫ রান দেওয়া আশিষ নেহারা, ৪ ওভারে ৪১ রান দেওয়া বেন কাটিং এবং ৪ ওভারে ২৯ রান দেওয়া রশিদ খান। ২ ওভারে ২৬ রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকেন মোস্তাফিজের জায়গায় দলে আসা মইসেস হেনরিকস।

১৭৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে হায়দ্রাবাদের ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ৩০ বলে চারটি বাউন্ডারিতে করেন ২৬ রান। আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ানের ব্যাট থেকে আসে ২৩ রান। মইসেস হেনরিকস করেন ১৩ রান। ১৬ বলে দুটি করে চার ও ছক্কায় ২৬ রানে সাজঘরে ফেরেন যুবরাজ সিং। দীপক হুদা ১৩ আর বেন কাটিং ১৫ রানে বিদায় নেন।

শেষ দিকে নোমান ওঝা ১১ বলে ১১ আর বিপুল শর্মা ১৪ বলে ২১ রান করে অপরাজিত থাকলেও দলকে জেতাতে পারেননি।

কলকাতার হয়ে দুটি উইকেট নেন ক্রিস ওকস। একটি করে উইকেট দখল করেন ট্রেন্ট বোল্ট, নারাইন, কুলদীপ ডাদব আর ইউসুফ পাঠান।

গত মৌসুমে ৩ বার মুখোমুখি হয়েছিলেন সাকিব-মোস্তাফিজরা। যেখানে গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচেই জয় পেয়েছিল সাকিবরা। তবে, প্রথম এলিমিনেটরে সাকিবদের হারিয়ে কোয়ালিফায়ারে জায়গা করে নেয় মোস্তাফিজের হায়দ্রাবাদ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :