রাত ১০:০৬, বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং
/ হকি / দ্বিতীয় ম্যাচে ঘানার সঙ্গে ড্র জিমিদের
দ্বিতীয় ম্যাচে ঘানার সঙ্গে ড্র জিমিদের
ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৭

আসল পরীক্ষায় নামার আগের ৭ দিনে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ-বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের এমন পরিকল্পনা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন অনেক সাবেক খেলোয়াড়। তাদের যুক্তি খেলোয়াড়দের এখন রিকভারির সময়। মালয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে ৪ মার্চ। তার তিন দিন আগে ঘানার বিপক্ষে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। জিমিরা মাঝে সময় পাচ্ছেন মাত্র ২ দিন। ক্লান্তিভরা শরীর নিয়েই যে তাদের শুরু করতে হবে হকি ওয়ার্ল্ড লিগ রাউন্ড-২ এর খেলা।

টুর্নামেন্টের আগে প্রস্তুতি ম্যাচের বিকল্প নেই। কিন্তু সে প্রস্তুতি ম্যাচ কেন এতটা শেষ দিকে, তা নিয়ে দুই রকম ব্ক্তব্য আছে হকি ফেডারেশনেই। প্রথম ম্যাচে ঘানার কাছে হারের পর সোমবার দ্বিতীয় ম্যাচে কোনোমতে ড্র। অভিজ্ঞ গোলরক্ষক জাহিদ হোসেন পোস্টে দেয়াল হয়ে না দাঁড়ালে এ ম্যাচও হারতে হতো তাকে। গোটা পাঁচেক দুর্দান্ত সেভ করেছেন তিনি।

বাংলাদেশের খেলায় না ছিল ছন্দ, না ছিল গতি। যা ছিল তা সবই ভুল পাস। খেলোয়াড়দের মধ্যে ছিল ক্লান্তির ছাপ। অনেক দিন ধরে অনুশীলনে জিমিরা। তাদের উপর দিয়ে ট্রেনিংয়ের যে ধকল গেছে, তা কাটিয়ে উঠতে পারেনি এখন। যে কারণে ঠিকমতো বল রিসিভ করতে পারছিলেন না তারা। পাসটাও হচ্ছিল না সঠিকভাবে।

বাংলাদেশের এমন ছন্নছাড়া খেলার জন্য অবশ্য মিডিয়াকে দায়ী করেছেন দলের জার্মান কোচ অলিভার কার্টজ। ম্যাচের পর তিনি সোজা-সাপ্টা বলে দিলেন মিডিয়ার নেতিবাচক খবরের জন্যই খেলোয়াড়দের মনোবল ভেঙ্গে গেছে। প্রথম ম্যাচে ঘানার বিপক্ষে ২-০ গোলে হারের পর মিডিয়ার প্রতিবেদনগুলো নাকি ঠিক হয়নি। এটা প্রস্তুতি ম্যাচ, এখনই খেলোয়াড়দের দোষ দেয়া ঠিক না-ম্যাচের পর এমনই বলেছেন তিনি।

তবে প্রথম ম্যাচে ২ গোলে হারা দলটি দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করায় তিনি সেটাকে পজিটিভ হিসেবেই দেখছেন। কাগজে-কলমে ঘানা বাংলাদেশের পেছনে থাকলে তারা শারীরিকভাবে অনেক এগিয়ে। মাঠেও সেটা দেখিয়েছেন আফ্রিকার দলটি। মিলনের দেয়া গোলে বাংলাদেশই প্রথম লিড নিয়েছিল। কিন্তু পর পর ২ গোল করে সফরকারী দলটি এক পর্যায়ে এগিয়ে যায়। পেনাল্টি কর্নার থেকে চয়নের গোলে অবশ্য হার এড়িয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। ১ মার্চ দুই দলের তৃতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :