রাত ১২:২৪, বুধবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / ৮০ শতাংশ ফিট মোস্তাফিজ ও ইবাদত
৮০ শতাংশ ফিট মোস্তাফিজ ও ইবাদত
ডিসেম্বর ৪, ২০১৬

কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে ইংল্যান্ড গিয়ে গত জুলাইয়ে ইনজুরিতে পড়েন বাংলাদেশের বিস্ময় বালক মোস্তাফিজুর রহমান। সেখানেই অস্ত্রোপচার শেষে দেশে ফিরে রিহ্যাব প্রক্রিয়ায় আছেন এ পেসার। তবে খুশির সংবাদ হচ্ছে, ইনজুরি কাটিয়ে উঠে প্রায় ৮০ শতাংশ ফিট হয়েছেন এ পেসার।
নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগেই মোস্তাফিজ পুরো ফিট হবে বলে আশা করছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। শুধু মোস্তাফিজ নয়, ফাস্ট বোলার হান্টের তরুণ প্রতিভাবান পেসার ইবাদতও প্রায় ফিট হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
রোববার সকালে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে দেবাশীষের অধীনে বোলিং করেন মোস্তাফিজ ও ইবাদত। এরপর তাদের ফিটনেস নিয়ে প্রধান চিকিৎসক বলেন, ‘সকালের অনুশীলন সেশনে মোস্তাফিজ ও এবাদত দুজনই বোলিং করেছে। ওরা দুজনই বোলিং সামর্থ্যের ৮০-৯০ শতাংশ দিয়ে বল করেছে। আমাদের ট্রেনার খুবই খুশি এ দু’জনের অগ্রগতি নিয়ে। এবং আরও আনন্দের কথা হচ্ছে ওরা দুই স্পেলে বোলিং করতে পেরেছে। নিঃসন্দেহে তারা ৮০-৯০ শতাংশ উন্নতি করেছে।’
যদিও ৮০ শতাংশ উন্নতি করেছেন মোস্তাফিজ ও ইবাদত। তবে দেবাশীষ এটাকেই পুরো উন্নতি মনে করছেন। তার মতে, অনুশীলনে সবাই এমনটাই করে। মাঠের খেলায় পুরোটা দিতে পারবেন বলে বিশ্বাস তার। তবে এখনও কিছুদিন সময় পাচ্ছেন তারা। এর মধ্যেই আলোচনা হবে তারা অস্ট্রেলিয়া বা নিউজিল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন কি না।
‘এখন ৮০-৯০ শতাংশ উন্নতি করা মানেই কিন্তু প্রায় ফিটনেস লেভেল সম্পন্ন করেছে। আসলে ১০০ শতাংশ জিনিসটা তো যখন খেলার পরিবেশে যাবে তখন পুরাটা দেবে। এখানে যখন ৮০ শতাংশ দিচ্ছে তখন আমরা ধরেই নিচ্ছি উন্নতি পুরোপুরি হয়ে গেছে। আর কয়েকটা দিন মাত্র সময় আছে আমাদের হাতে। এর মধ্যে আরেকটা জিম সেশন ও বোলিং সেশন হবে এরপর নির্বাচক বা টিম ম্যানেজম্যান্ট যদি চিন্তা করবে অস্ট্রেলিয়া বা নিউজিল্যান্ড সফর করার ব্যাপারে।’
অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সফরে মোস্তাফিজ ও ইবাদত যাচ্ছেন কিনা, তা নির্ভর করছে নির্বাচকদের ওপর। তবে অস্ট্রেলিয়া গেলে তারা কীভাবে রিহ্যাব করবেন জানতে চাইলে দেবাশীষ বলেন, ‘যেহেতু ৮০-৯০ শতাংশ ইনটেনসিটিতে বোলিং করতে পারছে আমরা ধরে নেব টিমের সঙ্গে অন্যান্য বোলাররা যে ধরনের ড্রিলগুলো করছে, যে ধরনের অনুশীলন সিডিউল বজায় রাখবে একই সিডিউল ওরাও ফলো করতে পারবে।’
এছাড়াও কদিন আগেই বিপিএলে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়েন মোহাম্মদ শহীদ। তবে তারও আগের চেয়ে অনেক উন্নতি হয়েছে বলে জানান দেবাশীষ, ‘শহীদের ইনজুরিটা তো গত সপ্তাহে হলো। ওর এসিএল লিগামেন্টে যে ইনজুরিটা ছিল। আমরা আজকে ওর পরীক্ষা করেছি। ওর হাঁটুর অবস্থা আগের চেয়ে অনেক ভালো। আজকে পরীক্ষায় কিছু কিছু টেস্ট ও পাশ করেছে। কিন্তু ওর এখন পায়ের যে অবস্থা ওকে আরও এক সপ্তাহ বেড রেস্টে থাকতে হবে। আমরা দুই-তিন দিনের মধ্যে আবার ওকে আমরা রিভিউ করবো। তারপর পরবর্তী চিকিৎসার ব্যাপারে জানাতে পারবো।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :