ভোর ৫:২৪, শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ হকি / হকি দলকে নিয়ে জার্মান কোচের পরিকল্পনা
হকি দলকে নিয়ে জার্মান কোচের পরিকল্পনা
ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬

আগামী মার্চে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য হকি ওয়ার্ল্ড লিগ রাউন্ড-২ এর সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ। আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই লক্ষ্যের কথা জানান জাতীয় হকি দলের জার্মান হেড কোচ অলিভার কার্টজ। সঙ্গে লক্ষ্য অর্জনে নানা প্রস্তুতির কথাও জানিয়েছেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে কার্টজের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাদেক, সহ-সভাপতি শফিউল্লাহ আল মুনীর। প্রথমেই আব্দুস সাদেক তুলে ধরেন কার্টজের সঙ্গে ফেডারেশনের চুক্তির সর্বশেষ অবস্থা, ‘আমরা দুপক্ষই নৈতিকভাবে সম্মত যে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে চুক্তি সম্পাদিত হবে। কার্টজ তার চুক্তির মাঝে বাংলাদেশের ঘরোয়া লিগের সময় সূচি ও অন্যান্য প্রতিযোগিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চেয়েছে। এরপরই সে তার পুরো পরিকল্পনা সাজাবে। আমরা আইনগত বিষয়গুলোও সেই সঙ্গে বিবেচনা করছি।’

কয়েক দিনের মধ্যে নতুন চুক্তি সম্পাদিত হলেও ইতোমধ্যেই এএইচএফ কাপের জন্য তিন মাস আগে করা চুক্তি শেষ হয়েছে। সেই চুক্তি প্রসঙ্গে কার্টজ বলেছেন, ‘আমি বাংলাদেশে কাজ করতে পেরে গর্বিত। আমি আনুষ্ঠানিকভাবেই বলতে চাই যে বাংলাদেশের এশিয়া কাপ মিশন শেষ হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশেই আছি। এর মাঝেই দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা দেবো। যার ব্যাপ্তি হবে দুই থেকে তিন বছর।’

হকির জাতীয় দল কমিটির চেয়ারম্যান শফিউল্লাহ আল মুনীর কার্টজকে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য দিয়ে বলেছেন, ‘কার্টজকে আমরা বলে দিয়েছি ভালো ফলাফল চাই। আর এ জন্য আমাদের সীমাবদ্ধতার মাঝে সর্বোচ্চ সহায়তার আশ্বাস দিয়েছি। তবে এ কথা বলতে চাই যে অন্তত জাতীয় দলের জন্য হকি ফেডারেশনের আর্থিক দৈন্যতা নেই। ’

এরপরই কার্টজ তার প্রস্তুতির পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন, ‘আমি ইতোমধ্যেই ৩৫ থেকে ৪০ জন খেলোয়াড় নিয়ে কাজ শুরু করেছি। জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে দলকে নিয়ে চলে যাবো বিকেএসপিতে। আমি এজন্য ফেডারেশনের কাছে একজন অ্যাথলেটিক কোচ চেয়েছি। দুই সপ্তাহ সেখানে ফিটনেস প্রোগ্রমের পর শুরু হবে আন্তর্জাতিক ম্যাচের প্রস্তুতি। এখানে সাত-আটটা ম্যাচ খেলে দল ছোট করবো। ’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘জানুয়ারির শেষ দিক বা ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি দল যাবে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। সেখানে দল খেলবে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ, এরপর ফিরে এসে ইউরোপিয়ান দলের সঙ্গে তিন চারটি ম্যাচ খেলবে দল। যেখানে রাশিয়া আমাদের বিবেচনায় আছে। অস্ট্রিয়া অনূর্ধ্ব-২১ বা পোল্যান্ডও খারাপ নয়। আমরা উঁচু র‌্যাংকিংয়ের দলের বিপক্ষেই খেলবো।’

উল্লেখ্য, কয়েক দিনের মধ্যেই বড়দিন ও নববর্ষের ছুটিতে যাচ্ছেন কোচ কার্টজ। জানুয়ারির শুরুতে ফিরে ফের শুরু করবেন ক্যাম্পের কর্মকাণ্ড।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :