সকাল ৯:৫৭, সোমবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / বাংলাদেশের বিপক্ষে বিশ্রাম নিতে পারেন উইলিয়ামসন
বাংলাদেশের বিপক্ষে বিশ্রাম নিতে পারেন উইলিয়ামসন
ডিসেম্বর ১১, ২০১৬

ক্রিকেটে ব্যস্ত সূচি পার করছে নিউজিল্যান্ড। ক’দিন আগেই অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে দলটি। যেখানে অবশ্য হোয়াইটওয়াশের লজ্জায় পড়তে হয় তাদের। এর আগে কিউইরা দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারত সফর করেছিল।

সম্প্রতি সিরিজগুলোতেই আটকে থাকছে না নিউজিল্যান্ড। সামনে তাদের সূচি আরও ব্যস্ত। আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বক্সিং ডে সহ মোট ১১টি ওয়ানডে, চারটি টি-টোয়েন্টি ও পাঁচটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে।

বক্সিং ডে দিয়ে (২৬ ডিসেম্বর) বাংলাদেশের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করবে কিউইরা। পরবর্তীতে টি-২০ ও টেস্ট ম্যাচ খেলবে স্বাগতিকরা।

এদিকে পূর্ণাঙ্গ এই সিরিজটিতে হয়তো ব্ল্যাক ক্যাপসরা তাদের মূল দল নিয়ে নাও খেলতে পারে। কারণ এরপরই দলটিকে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো শক্তিশালী দেশের বিপক্ষে লড়তে হবে। ফলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে দলের নিয়মিত অধিনায়ক ও দেশটির সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেটার কেন উইলিয়ামসনকে হয়তো টাইগারদের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজে বিশ্রামে রাখা হতে পারে। সেই সঙ্গে দলের বেশ কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটারও এই কাতারে থাকতে পারেন।

তবে এই সিরিজেই ফিরতে পারেন বেশ ক’জন কিউই ক্রিকেটার। শেষ অজি সফরে চোখের সমস্যার কারণে না যাওয়া অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেইলরের ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে তাকে হয়তো ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া টেস্ট দলে নেওয়া হবে।

এ সিরিজে ফিরতে পারেন বাঁহাতি ফাস্ট বোলার মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান ও কোরে অ্যান্ডারসনও। দু’জনই ইনজুরি কাটিয়ে সুস্থ হয়েছেন।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে ইতোমধ্যে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রস্তুতি ক্যাম্প করতে চলে গেছে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। ১৮ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়া থেকে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে যাত্রা করবে বাংলাদেশ দল। ২২ ডিসেম্বর সেখানে একটি প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেবে বাংলাদেশ।  ২৬ ডিসেম্বর ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে মূল সিরিজ শুরু হবে। ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় ওয়ানডে। তৃতীয় ওয়ানডে ৩১ ডিসেম্বর।

এর আগে সিডনিতে প্রস্তুতি ক্যাম্প চলাকালীন সময়ে বিগ ব্যাশের দল সিডনি থান্ডার্স ও সিডনি সিক্সার্সের বিপক্ষে প্রস্ততি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। আগামী ১৪ ও ১৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচ দুটি।

ওয়ানডের সিরিজের পর শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ০৩ জানুয়ারি প্রথম টি-টোয়েন্টি, ০৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি। তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ০৮ জানুয়ারি।  ১২ জানুয়ারি শুরু সিরিজের প্রথম টেস্ট। ২০ জানুয়ারি দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :