রাত ১১:০৭, শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / আফ্রিদিকে দেখেই ‘বিগ হিটার’ সাব্বির
আফ্রিদিকে দেখেই ‘বিগ হিটার’ সাব্বির
ডিসেম্বর ৮, ২০১৬

টি-টোয়েন্টি তো বিগ হিটারদেরই খেলা। চার-ছক্কায় মহড়া বসাতে পারদর্শীরাই ক্রিকেটের এই ফরম্যাটের পছন্দের তালিকায় এগিয়ে থাকেন। সাব্বির রহমান রুম্মনও তা-ই। বাংলাদেশ ক্রিকেটে তার পরিচয়টা টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট হিসেবেই। আর টাইগারদের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড তাকে ভিন্ন কল্পনা করা কঠিন! নিজেকে প্রমাণ করেই দলে এই অবস্থানটা মজবুত করেছেন ২৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

সাব্বির কীভাবে বিগ হিটার হলেন? জানার কৌতূহল অনেকেরই। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাব্বির নিজেই জানালেন বিগ হিটার হওয়ার রহস্য। পাকিস্তানের সুপার হিটার ‘বুমবুম’ খ্যাত শহিদ খান আফ্রিদিকেই দেখেই বিগ হিটের প্রতি ঝুঁকে পড়েন তিনি।

বিপিএলের চতুর্থ আসরে বরিশাল বুলসের বিপক্ষে ৬১ বলে ১২২ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেন সাব্বির। যা সাজানো ৯টি চারের সঙ্গে ৯টি ছক্কায়। ফাইনালের আগ পর্যন্ত চলতি বিপিএলে যা একমাত্র সেঞ্চুরি। এছাড়া এটি বিপিএলে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংসের রেকর্ডও। দুর্ভাগ্য তার। মহাকাব্যিক ইনিংসটি খেলেও জয়ের মুখ দেখতে পারেননি। ওই ম্যাচে সাব্বিরের দল রাজশাহী কিংস হেরেছিল ৪ রানে।

তবে জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে সাব্বিরের সর্বোচ্চ ইনিংসের ম্যাচটিতে বাংলাদেশ পেয়েছিল অনায়াস জয়। ওই ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ২৩ রানে হারিয়েছিলেন টাইগাররা। এটি লঙ্কানদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের প্রথম জয়। চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপে লঙ্কানদের বিপক্ষে ৫৪ বলে ৮০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছিলেন। ১০টি চারের সঙ্গে ৩ ছক্কায় ম্যাচজয়ী ইনিংসটি সাজান পঁচিশের এই তারকা।

এদিকে এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই ‘বিগ হিটার’ আফ্রিদির পরিচিতি! ১৯৯৬ সালের ৪ অক্টোবর কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন পাকিস্তানি এই সুপারস্টার। শেষ পর্যন্ত ৪০ বলে ৬টি চার ও ১১টি ছক্কায় ১০২ রানে থামে সেই ইনিংস। আফ্রিদি ঝড়ে সেদিন পাকিস্তান জয় লাভ করেছিল ৮২ রানে।

আফ্রিদির সেই সেঞ্চুরি দেখেই কি সাব্বির অনুপ্রাণিত হন বিগ শট খেলতে? ব্যাপারটা তো সেরকমই। শোনা যাক সাব্বিরের ভাষায়,‘যখন থেকে আমি শহিদ আফ্রিদিকে অনুসরণ শুরু করলাম, তখন থেকেই বিগ হিটের প্রতি আমার আকর্ষণ বাড়তে থাকে। আফ্রিদি সেই (৩৭ বলে) সেঞ্চুরিটা করলো, আর আমি চিন্তা শুরু করলাম, কীভাবে তার মতো বড় বড় শট খেলতে পারবো; কিন্তু সমস্যা হলো, আমার বড় শটগুলো খুব বেশি দূর যেতো না। বন্ধুরাও আমাকে আর টেনিস বলে ব্যাট করতে দিতে চাইতো না। কিন্তু নিজের ভেতর পাগলামিটা তখন থেকেই শুরু হয়েছিল; কীভাবে আমি একজন বিগ হিটার হবো!’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :