সকাল ৮:০৩, শনিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / অভিনন্দন বাংলাদেশকে : হোয়াটমোর
অভিনন্দন বাংলাদেশকে : হোয়াটমোর
নভেম্বর ৩, ২০১৬

বাংলাদেশ দলের প্রথম টেস্ট জয় এসেছিল ডেভ হোয়াটমোরের হাত ধরেই। ২০০৫ সালে জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জয় পেয়েছিলেন টাইগাররা। এরপর ক্রমে ক্রমে উন্নতির ধারা অব্যাহত রেখে সর্বশেষ সিরিজে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয় পেয়েছেন মুশফিকরা। দ্বিতীয় টেস্টে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

প্রায় এক দশক পর আবার বাংলাদেশে কোচ হিসেবে এসেছেন হোয়াটমোর। তবে জাতীয় দল নয়, এবার এসেছেন বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি দল বরিশাল বুলসের কোচ হয়ে। এসেই ঐতিহাসিক জয়ের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় দলকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি এ অস্ট্রেলিয়ান।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে অনুশীলন করতে আসে বরিশাল বুলস। অনুশীলন করানোর ফাঁকে ডেভ হোয়াটমোর বলেন, ‘আমি যেটা পারিনি, সেই টেস্ট জয়টা বাংলাদেশ পেয়েছে। আমি মনে করি এটা বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিজয়। আমরা জানি হোম কন্ডিশনে সফরকারী প্রতিপক্ষের জন্য ভালো খেলা বেশ কঠিন। অভিনন্দন বাংলাদেশকে।’

২০০৭ সালের বিশ্বকাপ শেষে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব ছাড়েন ডেভ। এরপর চড়াই-উৎরাই করে অনেক বদলেছেন টাইগাররা। ওয়ানডে ক্রিকেটে গত বছর থেকেই রীতিমতো জায়ান্ট দলে পরিণত হয়েছে মাশরাফিরা। সে ধারায় এখন টেস্টেও সাফল্য পাচ্ছেন মুশফিকরা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট জয়ের কৃতিত্ব বাংলাদেশের কাঠামোগত উন্নতির ফল মনে করছেন ডেভ।

‘আমি অনেক পরিবর্তন দেখতে পাচ্ছি। আগাগোড়া অনেক পরিবর্তন এসেছে। ক্রিকেট বোর্ড কঠোর পরিশ্রম করেছে এ জয়টাকে আনতে। নাহলে এমনটা ঘটতো না। খুব ভালো কোচিং স্টাফ, সাপোর্ট স্টাফ, ভালো খেলোয়াড় এবং সবচেয়ে জরুরি বিষয় দক্ষতাটা বেশ ইতিবাচকভাবেই বেড়েছে। এটা ততক্ষণ বজায় থাকবে যতদিন এ বিষয়গুলো ধরে রাখা যাবে।’

আগামী শনিবার থেকে চিাটাগং ভাইকিংসের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করবে ডেভের দল বরিশাল বুলস। প্রাথমিকভাবে কোনো লক্ষ্য তৈরি না করলেও টুর্নামেন্টটা উপভোগ করতে চান তারা। নিজেদের সেরাটা দিয়ে এগোতে চান বলে জানান ডেভ। প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেট খেলাটাকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন এ কোচ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :