রাত ১১:০৫, বুধবার, ২৯শে মার্চ, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / যে লিগে সবাই ফেবারিট
যে লিগে সবাই ফেবারিট
অক্টোবর ২৯, ২০১৬

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ৮ ক্লাবের প্রতিনিধিই বেশ শক্তিশালী  হিসেবে উল্লেখ করলেন নিজেদের দলকে। সবার কথার সুরটা প্রায় একই রকম। কারো কথা-আমরা চকম দেখাবো। কেউ বললেন, আমরা ছেড়ে কথা কইবো না। কারো মুখে দৃঢ়তা, আমরা প্রিমিয়ার লিগে ওঠার মতোই দল গড়েছি।

আগামীকাল(শনিবার) শুরু হতে যাওয়া পেশাদার ফুটবলের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের প্রস্তুতি নিয়ে এভাবে নিজেদের কথা বলেছেন ক্লাব প্রতিনিধিরা। তাদের কথা ও প্রত্যাশায় আভাস মিললো বেশ জমজমাট লিগই হবে। যে কোনো দলই উঠে যেতে পারে দেশের শীর্ষ লিগে। যে কারণে ফুটবল বোদ্ধাদের দৃষ্টিতে এ লিগে সব ক্লাবই ফেবারিট।

ফেবারিট হওয়ার কারণও আছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দিকে তাকালে দেখা যায় এর জন্মলগ্ন থেকেই মাঠ শাসন করে আসছেন বিদেশি ফুটবলাররা। মাঠে দুই দলের পার্থক্যটা গড়ে দিচ্ছেন ভিনদেশিরাই। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে বিদেশি খেলানোর অনুমতি নেই। মানের দিক দিয়ে দেশি ফুটবলাররা প্রায় সমান। কেউ উনিশ, কেউ বিশ-এই যা। এখানে যেহেতু বিদেশি নেই তাই ম্যাচের পার্থক্যটা গড়বেন স্থানীয়রাই। এ লিগের মাধ্যমে স্থানীয় খেলোয়াড়রা পাবেন নিজেদের প্রমান করার শতভাগ সুযোগ।

শনিবার উদ্বোধনী ম্যাচের দুই প্রতিপক্ষের একটি সাইফ স্পোর্টস ক্লাব অভিষেক আসরেই চমক দেখাতে চায়। ক্লাবটির ম্যানেজার মাহবুবুর রহমান বলেছেন,‘ আমাদের লক্ষ্য প্রথম অংশ গ্রহনেই বাজিমাত করা। আমরা শুধু অংশ গ্রহনের জন্যই আসিনি। শিরোপা জয়ের জন্যই দল গড়েছি।’

বাংলাদেশ পুলিশ দলের সহকারী ম্যানেজার কাজী নুসরাত এ দিন লুনা নিজেদের প্রস্তুতি ও লক্ষ্যের কথা বলতে গিয়ে আপসোস করলেন গত আসরের ফল নিয়ে ‘কিছু ভুলের জন্য গতবার শিরোপা পাইনি। এবার সে ব্যর্থতা কাটিয়ে প্রিমিয়ার লিগে ওঠাই আমাদের লক্ষ্য।’

এক সময় দেশের শীর্ষ এ লিগে নিয়মিতই ছিল চট্টগ্রাম মোহামেডান। কিন্তু গত চার মৌসুম ধরে তারা নেই। অনেকটা হারিয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা চট্টলার দলটির। আবার প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসার লক্ষ্য নিয়ে এবার বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ খেলছে চট্টগ্রামের সাদা-কালোরা। দলটির প্রস্তুতি চলছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আলফাজ আহমেদের অধীনে। দলের প্রস্ততি নিয়ে ম্যানেজার তৌহিদুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমরা তরুণ ও অভিজ্ঞদের নিয়ে দল গড়েছি। অতীতে চট্টগ্রাম মোহামেডানের যেমন সুনামের সঙ্গে বিচরণ ছিল বিভিন্ন প্রতিযোগিতায়, সেটা ফিরিয়ে আনতে চাই।’

তরুণ খেলোয়াড়দের প্রাধান্য দিয়ে দল গড়েছে ভিক্টোরিয়া। দলটির  ম্যানেজার নুরুজ্জামান বলেছেন, ‘গত বছরের দলের মাত্র দুইজন খেলোয়াড় আছে। যাদের নিয়ে এবার দল গড়া হয়েছে তারা সবাই প্রতিভাবান। মাঠে আমরা কাউকে ছেড়ে কথা বলবো না।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :