বিকাল ৪:০৭, মঙ্গলবার, ২৮শে মার্চ, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / ব্যর্থতার দায় কাঁধে নিয়ে সেইন্টফিটের বিদায়
ব্যর্থতার দায় কাঁধে নিয়ে সেইন্টফিটের বিদায়
অক্টোবর ১৪, ২০১৬

অনেক আশা নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের কোচ হয়েছিলেন বেলজিয়ামের টম সেইন্টফিট। আশাহত এই বেলজিয়ান কোচ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে চুক্তি না বাড়িয়ে নিজের দেশে ফিরে গেছেন। জাতীয় দলের ব্যর্থতার দায় নিজের কাঁধেই নিয়েছেন বেলজিয়ান এই কোচ।
বাংলাদেশের সঙ্গে সেইন্টফিটের খণ্ডকালীন চুক্তি শেষ হয়েছে ভুটান ম্যাচের পর। আপাতত সেই চুক্তি বাড়ানোর কোনো ইচ্ছা নেই তার। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) রাতেই বেলজিয়ামে ফিরে গেছেন সেইন্টফিট।
বিদায়ের আগে তিনি বাংলাদেশের ফুটবলকে দোষীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করাননি। জানিয়েছেন, ‘ভুটানের বিপে ম্যাচ হারাটা দুর্ভাগ্যজনক। তবে, এক দিক দিয়ে এটা বাংলাদেশের জন্য ভালোই হয়েছে। বাংলাদেশ এখন আবার নতুন করে শুরু করতে পারবে সবকিছু। যেকোনো ম্যাচ হারাটাই আমার কাছে কোচ হিসেবে ব্যর্থতার পরিচয়। আমি বাংলাদেশের এই হারটাকে সহজভাবে নিয়েছি। বাংলাদেশ এর আগে ভুটানে গিয়ে খেলেনি। বিভিন্ন কাবের ফুটবলার সেখানে খেললেও জিততে পারেনি। তবে, এসব আমার অজুহাত নয়। আর অপছন্দ হলেও ব্যর্থতার দায় আমারও। যেহেতু আমি এই দলের কোচ ছিলাম।’
বাংলাদেশ ছাড়ার আগে সেইন্টফিট আরও যোগ করেন, ‘জাতীয় দলের সাফল্যের জন্য এখন থেকেই বয়সভিত্তিক দল গড়তে হবে। আমার এই দলে অনেক তরুন ফুটবলারকে পেয়েছিলাম। তাদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে হবে। বাফুফে ও বিভিন্ন কাবগুলো অনুরোধ করবো বয়সভিত্তিক দলগুলোকে বেশি বেশি কাজ করতে। আমার বিশ্বাস আগামী তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশ একটা ভালো জাতীয় দল পেয়ে যাবে।’
উল্লেখ্য, এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে ভুটানের বিপে প্লে অফ ম্যাচে কঠিন পরীায় নেমেছিল সেইন্টফিটের বাংলাদেশ। তবে, স্বাগতিক ভুটানের বিপে জয় পাওয়া হয়নি লাল-সবুজদের। অ্যাওয়ে ম্যাচে ৩-১ গোলে হেরে বাছাইপর্বে ওঠার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে বাংলাদেশের। বাছাইপর্বে উঠতে কমপে ১-১ গোলের ড্রয়ের প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। গত ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার হোম ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করেছিল বাংলাদেশ। ফলে, অ্যাওয়ে ম্যাচে ভুটানের বিপে জিতেই বাছাইপর্বে উঠতে চেয়েছিল মামুনুলরা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :