সকাল ১০:৩৪, সোমবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস
বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস
অক্টোবর ৩০, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা অফিস : ২৭৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ভালোই জবাব দিচ্ছিল দুই ওপেনার কুক-ডাকেট।

কোনো উইকেট না হারিয়ে একশ রান করে ওপেনার এই জুটি। স্বপ্ন যেন ক্ষণে ক্ষণে ভঙ্গ হচ্ছিল টাইগারদের। বাংলাদেশ দলকে আর সমর্থন দেবে না বলে ফেসবুকেও স্ট্যাটাস দিয়েছিল সাইফুল্লাহ সাদেক নামে এক সমর্থক।

 

কিন্তু ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলন যে বাংলা থেকে শুরু হয়েছিল, সে বাংলার টাইগারদের উত্তরসূরিরা তো এত সহজে হারতে নারাজ। জানে কীভাবে প্রতিপক্ষকে কঠিন সময়েও ঘায়েল করতে হয়।
তাই তো গত ম্যাচে বাংলাদেশ দলের শ্রেষ্ঠ আবিষ্কার মেহেদী হাসান মিরাজ আজও ১৬ কোটি বাঙালিকে স্বপ্ন দেখানোর শুভ সূচনাটি করেছেন। বেন ডাকেটের স্টাম্প ভেঙে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে জয়ের স্বপ্ন দেখা শুরু। এরপর সাকিব আল হাসানের বলে জো রুট বিদায়। খেলায় ভালোভাবে ফিরল টিম টাইগার।
সাকিব-মিরাজ দু’জনের কাছেই পরাজয় হবে ইংলিশরা; হয়তো কেউই এমনটি ভাবেনি। তবে বাস্তবে সেটিই করে দেখিয়েছেন। ১০৮ রানের বিশাল ব্যাবধানে ব্রিটিশদের হারিয়ে পুনরায় বিশ্ব দরবারে লাল-সবুজের পতাকার জাত ছিনিয়েছেন এ দু’জন।
কানায় কানায় পূর্ণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিভি রুম ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ স্লোগানে মুখর। পুরো বাঙালি হাসছে বিজয়ের হাসিতে। ব্যতিক্রম ছিল না, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ও। লাল-সবুজের দামি পতাকা মাথায় বেঁধে রাস্তায় নেমেছে মিছিল নিয়ে। প্রতিটি হল ও অনুষদ থেকে বের হয়েছে বিজয় মিছিল। বিজনেস ফ্যাকাল্টি, অপরাজেয় বাংলা, কার্জন হল, টিএসসি সব জায়গাই ছিল ‘বাংলাদেশ-বাংলাদেশ’ প্রতিধ্বনি।

 

প্রতিটি হল থেকে বের হয়েছে শিক্ষার্থীদের বিজয়ের মিছিল। রাজু ভাস্কর্যের সামনে শত শিক্ষার্থীর ‘ স্লোগানে’ যেন ইংলিশরা পুনরায় লাল কার্ড দেখছে। এটি টাইগার সমর্থকের বিজয় উল্লাস। হৈ-হুল্লোড় আর চিৎকার-চেচামেছিতে মুখর ঢাবির প্রতিটি আঙ্গিনা। বিজয় বাংলাদেশের। বিজয় ১৬ কোটি বাঙালির। বিজয় লাল সবুজের পতাকার।
যেমনটি বলছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র ছিদ্দিকুর রহমান। তিনি বলেন, এটি বাংলাদেশের ঐতিহাসিক টেস্ট জয়। এর জয়ে আমি আনন্দিত ও গর্বিত। বাংলাদেশ ভালো খেলবে। ভালো খেলুক। এগিয়ে যাবে টাইগাররা।
অন্যদিকে এমন বিজয়ের হাসি সব সময়ই হাসবে বাংলাদেশ, এমনটাই আশা মঈন উদ্দিন সজীব নামে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ১ম বর্ষের আরেক শিক্ষার্থীর। তিনি বলেন, অনেক দিন পর এমন একটি প্রত্যাশিত জয় পেয়েছি আমরা। আশা করি ওয়ানডের মতো টেস্টেও আগামী দিনগুলোতে রাজত্ব করবে টাইগাররা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :