বিকাল ৩:১১, বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / চাইনিজ তাইপেকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করল দেশের মেয়েরা
চাইনিজ তাইপেকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করল দেশের মেয়েরা
সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৬

এএফসি অনূর্ধ্ব ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে খেলার আরো কাছাকাছি চলে এল বাংলাদেশ। শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের মেয়েদের ৪-১ গোলে হারানোর পর আগামী বছর থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সেই প্রতিযোগিতায় কৃষ্ণা-সানজিদাদের খেলাটা এখন কেবল সময়ের ব্যাপার!
কারণ শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ অপেক্ষাকৃত দূর্বল সংযুক্ত আরব আমিরাত। ইরান-তাইপেকে যারা বলে কয়ে হারায় ‘পুঁচকে’ আমিরাতের কাছে তারা হারবে এটা বোধহয় কেউ কল্পনাও করেন না।

আজ জিতলেই চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্ব নিশ্চিত কারণ দুদলেরই সমান ৯ পয়েন্ট। তাই আজকের ম্যাচটিই হয়ে দাড়ায় ‘অঘোষিত’ ফাইনাল হিসেবে। আর সেই ‘ফাইনালটা’ হয়ে রইল বাংলাদেশময়।

শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের মেয়েদের বলে কয়ে হারাল টাইগ্রেসরা। প্রথমার্ধে ২-১ গোলে এগিয়ে থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরো দুটি গোল করে বাংলাদেশের মেয়েরা।

তবে ম্যাচে প্রথম গোলটা কিন্তু বাংলাদেশকেই হজম করতে হয়েছে। রক্ষণের ভুলে ১১ মিনিটে গোল খেয়ে বসে বাংলাদেশ। খেলার ২৭ মিনিটে গোল শোধ করেন শামসুন্নাহার। এরপর ৩৯ মিনিটে এই ফরোয়ার্ডের আরেক গোলে ম্যাচে লিড নেয় বাংলাদেশের মেয়েরা।

ম্যাচের ১১ চাইনিজ তাইপের অধিনায়ক সু ইউ সুয়ান গোল করে দলকে লিড এনে দেন। এরপর গোল শোধে মরিয়া হয়ে ওঠে বাংলাদেশের মেয়েরা। ২৩তম মিনিটে ভালো একটা পেয়েছিল লাল-সবুজের দল। নার্র্গিসের নেয়া শট সরাসরি চলে যায় তাইপের গোলরক্ষকের গ্লাভসে।

এর মাত্র দুই মিনিট পরেই গোল পেয়ে যায় কৃষ্ণার দল। ডি বক্সের মধ্যে বাংলাদেশ দলপতিকে ফাউল করেন চাইনিজ তাইপের চেন চিয়াও ই। পেনাল্টির বাঁশি বাজাতে মোটেও দেরি করেননি রেফারি।

ম্যাচে দ্বিতীয় দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন চেন চিয়াও-ই। পেনাল্টি থেকে গোল আদায় করে বাংলাদেশকে সমতায় ফেরান শামসুন্নাহার। ১০ জনের তাইপে আর তেমন আক্রমণে উঠতে পারেনি। ৩৬ মিনিটে গোল পেতে গিয়েও পায়নি বাংলাদেশ।

তবে পরের মিনিটেই আবারো বাংলাদেশের অধিনায়ক কৃষ্ণা রাণীকে ডি বক্সের মধ্যে ফেলে দেন তাইপের অধিনায়ক সু ইউ সুয়ান। আবার পেনাল্টি থেকে গোল করে বাংলাদেশকে এগিয়ে দেন শামসুনন্নাহার। তিন মিনিট পরেই অবশ্য সমতায় ফিরতে পারতো চাইনিজ তাইপে।

তবে নিশ্চিত গোলের সুযোগ মিস করেন অনুচিং মোগিনি। ৪৩ মিনিটে তার আর একটি চলে ডায় বারের পাশ ঘেষে। ফলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে যায় বাংলাদেশের মেয়েরা।

বিরতির পর ফিরেই গোল করেন অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী। অনুচিং মোগিনের বাড়িয়ে দেওয়া বলে জোরালো শট নেন কৃষ্ণা। চাইনিজ তাইপের গোলরক্ষককের ক্লে তাকিয়ে থাকা ছাড়া আর কোনো কাজ ছিল না।

৭৬ মিনিটে আত্মঘাতি গোলে আবার এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। স্বপাকে ফাউল করেন তাইপের ডিফেন্ডার। শামসুন্নাহারের নেয়া ফি কিক চাইনিজ তাইপের চিং উন ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন।

৮৭ মিনিটে অবশ্য একটি গাল পরিশোধ করে সফরকারী দলটি। উ ইউ জু গোল করে ব্যবধানটা কমান। ৮৯ মিনিটে টেং পি লিনং দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখলে ৯ জনের দলে পরিণত হয় তাইপে।

এ জয়ের ফলে চার ম্যাচ থেকে পূর্ণ ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :