রাত ৯:৫১, শনিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / ২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে ফাইনালে দেখছেন আশরাফুল
২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে ফাইনালে দেখছেন আশরাফুল
আগস্ট ২৬, ২০১৬

গত দেড় বছরে বেশ কিছু সাফল্য জমা পড়েছে টাইগারদের ঝুলিতে। ঘরের মাঠে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ আর ভারত, দণি আফ্রিকার বিপে সিরিজ জিতেছেন মাশরাফিরা। গত বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ, এটাকেই টাইগারদের সবচেয়ে বড় অর্জন মনে করেন মোহাম্মদ আশরাফুল। আগামী ২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে ফাইনালে দেখছেন সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান।
ভবিষ্যতে বিশ্বমঞ্চে আরো ভালো করার সম্ভাবনা নিয়ে আশরাফুল বলেন, ‘আমাদের পরবর্তী বিশ্বকাপ খেলতে হবে ইংল্যান্ডের মাটিতে। ইংল্যান্ডের কন্ডিশন কিন্তু আমাদের এখানকার কন্ডিশনের তুলনায় সম্পূর্ণ আলাদা। তাই চাইলেই সেখানে গিয়ে কাঙ্তি অর্জন সম্ভব না। প্রস্তুতিটা শুরু করতে হবে এখন থেকেই। ইংল্যান্ডের কন্ডিশনের সাথে খাপ খাওয়ানোটা সবচেয়ে বেশি জরুরি। এজন্য ইংল্যান্ড সফরের কোনো বিকল্প নেই। জাতীয় দলের যেমন ইংল্যান্ড সফরে যাওয়া উচিৎ, তেমনি বয়সভিত্তিক দলগুলো যেমন অনূর্ধ্ব ১৯ কিংবা ‘এ’ দলকে ইংল্যান্ড সফরে পাঠানো উচিৎ। গত বিশ্বকাপে আমরা কোয়ার্টারফাইনালে খেলেছি। তাই আমাদের পরবর্তী ল্যটা আরো বড় হওয়া উচিৎ। সেমিফাইনালে খেলার ল্য তো থাকবেই, এমনকি ফাইনালেও খেলার আশা করা যায়।’
অভিজ্ঞ তামিম-সাকিব-মাশরাফি-মুশফিকদের সঙ্গে তরুণ সৌম্য-নাসির-মোস্তাফিজদের নিয়ে গড়া দল নিয়ে আশাবাদী আশরাফুল। সামনে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট। নির্বাসন কাটিয়ে ফেরা আশরাফুলের ভাষায়, ‘আমরা এখন দারুণ একটি দল। তবে উন্নতির শুরুটা কিন্তু অনেক আগে থেকেই শুরু হয়েছিল। আমরা যখন ছোট ছিলাম তখন যাদের দেখে ক্রিকেট খেলা শুরু করেছি তাদের কথা অবশ্যই বলতে হবে। আবার এখনকার ক্রিকেটারদের দেখে ভবিষ্যতে অনেকে ক্রিকেট খেলায় আসবে। এভাবে সকলের মিলিত প্রচেষ্টায়ই আজ আমাদের এই অবস্থান।’
বদলে যাওয়া বাংলাদেশের নেপথ্যে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা জাতীয় দলের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের প্রশংসায় আশরাফুল বলেন, ‘হাথুরুসিংহকে অবশ্যই ক্রেডিট দিতে হবে। তিনি ব্যাটসম্যানদের মানসিকতা পরিবর্তন করে দিয়েছেন। ব্যাটসম্যানদের স্বাধীনভাবে খেলার সুযোগও তিনি করে দিয়েছেন। তাই আজকের ব্যাটসম্যানরা মাঠে নেমে নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারছে। এর ফলে তারা সাফল্যও পাচ্ছে।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :