রাত ১২:৪৬, বুধবার, ২৫শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ রিও অলিম্পিক / পদক জয়ের পরই পেলেন বিয়ের প্রস্তাব
পদক জয়ের পরই পেলেন বিয়ের প্রস্তাব
আগস্ট ১৫, ২০১৬

দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ- অলিম্পিক গেমস। এখানে যা হয় তাই যেন গ্রেটেস্ট। এমনই এক মঞ্চকে বিয়ের প্রস্তাবের জন্য বেছে নিলেন চীনের দুই ডাইভার সাঁতারু। অলিম্পিক্সের আসরে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েই যেন অমর হয়ে গেলেন এই প্রেমিকজুটি! হ্যাঁ, রিও অলিম্পিক্সে এমনই এক সুন্দর এবং বিরল দৃশ্য ধরা পড়ল ক্যামেরায়। দুই চীনা ডাইভারের এহেন ভালবাসার সাক্ষী হয়ে থাকলো গোটা বিশ্ব।

Olympic

হে জি, নারীদের ৩ মিটার স্প্রিংবোর্ড ডাইভিং-এ রুপা জেতেন; কিন্তু রুপার পদকের চেয়েও বড় পুরস্কার তার জন্য অপেক্ষা করছিল, সেটা ভাবতেও পারেননি হে জি। পদক নিয়ে তিনি সবে পোডিয়াম থেকে নীচে নেমেছেন, তখনই খুব গম্ভীর মুখে তারই সতীর্থ কিন কুই হাজির হন জি-র সামনে।

হাঁটু গেঁড়ে বসে পড়েন তার সামনে। কী ঘটতে চলেছে তা দেখার জন্য গোটা পোডিয়ামের চোখ তখন জি-কিনের দিকে। এর পরই পকেট থেকে একটি লাল রঙের ছোট বাক্স বের করে নিলেন কিন। বাক্সটা খুলে জি-এর দিকে বাড়িয়ে সলজ্জে প্রস্তাব দিলেন, ‘তুমি কি আমায় বিয়ে করবে?’

Olympicঅপেক্ষা ছিল উত্তরের। কিন-এর এমন অদ্ভুত কাণ্ড দেখে প্রথমে স্তম্ভিত হয়ে যান হে জি। এ যেন অবিশ্বাস্য। কোনভাবেই ভাবতে পারেননি তার দীর্ঘদিনের প্রেমিক এমন একটা কাণ্ড করে বসবেন। তবে এক মুহূর্তও দেরি করেননি তিনি। সম্মতি দিয়ে দিলেন দেন কিনের প্রস্তাবে। সঙ্গে সঙ্গে কিনও জি’র আঙুলে পরিয়ে দিলেন সেই আংটিটা। গোটা পোডিয়াম তখন ফেটে পড়লো হাততালিতে।

উচ্ছ্বাসে হে জি জড়িয়ে ধরেন প্রেমিককে। এক প্রতিক্রিয়ায় জি বলেন, ‘আমরা ছয় বছর ধরে প্রেম করে আসছি। আজকের এ ঘটনার জন্য আমি প্রস্তুত ছিলাম না। সে আমাকে অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, কিন্তু আমাকে যে বিষয়টি স্পর্শ করেছে, বিশ্বাস। বাকি জীবনটা আমি তাকে বিশ্বাস করতে পারি।’

হে জি এবং কিন কুইয়ের সম্পর্ক অর্ধযুগ ধরে। প্রেমও করছিলেন চুটিয়ে। সেটা সম্পর্কের পরিণতিই কিন কুই দান করলেন অলিম্পিক আসরে। হে জি একাই নন, পদক জিতেছিলেন কিন কুই নিজেও। তবে তার পদক ব্রোঞ্জ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :