দুপুর ১২:৩৯, রবিবার, ২৮শে মে, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সাকিব জাদুতে জ্যামাইকার জয়
সাকিব জাদুতে জ্যামাইকার জয়
জুলাই ১৬, ২০১৬

প্রথম দু ম্যাচে নিজের নামের প্রতি তেমন সুবিচার করতে পারেননি সাকিব। তৃতীয় ম্যাচে জ্বলে উঠলেও দলকে জেতেতে পারেননি। এবার পঞ্চম ম্যাচে নিজে অর্ধশত করে দলকে জয় উপহার দিয়েই মাঠ ছাড়লেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। তার উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্সকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে জ্যামাইকা তালাওয়াহস।

আসরের ১৫তম ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই কোন রান না করেই স্টেইনের শিকারে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফিরেন মারটিন গাপটিল।  ব্যক্তিগত ১১ রান করে ইমাদ ওয়াশিমের বলে লেগবিফোরের ফাঁদে পড়ে মাঠ ছাড়েন আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান স্মিথ। তান্ডব চালাতে থাকা ক্রিস লিনও ইনিংস্টাকে বড় করতে পারেননি। ১৮ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১ ওভার বাউন্ডারিতে ৩৩ রান করে মাঠ ছাড়েন লিন।

এরপর এক পাশে জেসন মোহাম্মদ হাল ধরে দলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে থাকলেও ক্রিজের অপরপ্রান্তের ব্যাটসম্যানদের উইকেট বিলিয়ে যাওয়ার মিশনে বড় সংগ্রহ পেতে ব্যর্থ হয় গায়ানা। শেষদিকে সোহেল তানভিরের অপরাজিত ১১ বলে ১৫ রান ও মোহাম্মদের ৪৬ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে জ্যামাইকার বিপক্ষে ১২৮ রানের পুঁজি পায় গায়ানা।

জ্যামাইকা তালাওয়াহসের পক্ষে ৩১ রান খরচায় স্টেইন ও ১২ রান খরচায় ইমাদ দুটি উইকেট পান, এছাড়া সাকিব আল হাসান ২০ রান দিয়ে, তুলে নেন একটি উইকেট।

shakib

জবাবে ব্যাট করতে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি জ্যামাইকার। দলীয় ২ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর জুটি গড়েন সাকিব আল হাসান ও আন্দ্রে রাসেল। ক্রিজে এসেই তান্ডব চালাতে থাকা রাসেল বেশি দূর এগোতে পারেননি। ২ চার ও ২ ছয়ে ২৪ রান করে পারমোলের বলে দলীয় ৪৫ রানে সাজঘরে ফিরেন তিনি।

এরপর সাকিবের সঙ্গে জুটি গড়েন ক্রিজ গেইল। দলের বিপদের সময় শুরু থেকেই দারুণ খেলতে থাকেন সাকিব আল হাসান। ৭ চারের  মারে সিপিএলে নিজের প্রথম অর্ধ-শতক তুলে নেন সাকিব। সাকিবের অর্ধশতকের বিপরীতে শেষদিকে গেইলের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২৫ বল বাকী থাকতেই ৫ উইকেটের জয়ের স্বাদ পায় জ্যামাইকা তালাওয়াহস। শেষ পর্যন্ত সাকিব আল হাসান ৫৩* ও গেইল ৪৭* রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচসেরা হয়েছেন সাকিব আল হাসান।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :