সকাল ৮:৪৬, রবিবার, ২৮শে মে, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / জিকার ভয়ে রিও থেকে সরে দাঁড়ালেন বার্ডিচ-রাওনিচ-হালেপ
জিকার ভয়ে রিও থেকে সরে দাঁড়ালেন বার্ডিচ-রাওনিচ-হালেপ
জুলাই ১৮, ২০১৬

গলফের পর এবার অলিম্পিকের টেনিসেও ধাক্কা। জিকা ভাইরাস আতঙ্কে রিও অলিম্পিক থেকে নাম তুলে নিলেন উইম্বলডন রানার্সআপ মিলোস রাওনিচ ও বিশ্বের পাঁচ নম্বর মহিলা টেনিস তারকা সিমোনা হালেপ।

সদ্য শেষ হওয়া উইম্বলডনের ফাইনালে কানাডার রাওনিচ হেরেছিলেন অ্যান্ডি মারের কাছে। তিনি তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘খুব দুঃখের সঙ্গেই জানাচ্ছি, আমি রিওতে অংশ নেব না।’ আর দু’বছর আগে ফরাসি ওপেনের রানার্সআপ হালেপের কথায়, ‘অবসরের পর আমি সুখী সংসার করার স্বপ্ন দেখি৷ রিওতে গিয়ে কোনোভাবেই জিকা ভাইরাস সঙ্গে এনে আমি আমার ভবিষ্যৎ নস্ট করতে চাই না।’

এখানেই না থেমে হালেপ আরও বলেন, ‘আমি একা এই সিদ্ধান্ত নিইনি। অনেক ডাক্তার, পরিবারের সকলের সঙ্গে কথা বলেই জিকার ভয়ঙ্করতম দিক জেনেছি৷ তারপরই এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।’

শনিবার সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বের আট নম্বর টেনিস তারকা টমাস বার্ডিচও। চেক প্রজাতন্ত্রের এই তারকা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, জিকার জন্য তিনি কোনও ঝুঁকি নিতে চান না। রিওতে তিনি যাবেন না।

শুধু এই তিনজেই নয়, নানা কারণে রিওর টেনিস থেকে নাম তুলে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার নিক কির্ঘিয়স, বের্নার্ড টমিচ, যুক্তরাষ্ট্রের জন ইসনার, অস্ট্রিয়ার ডোমেনিক থিয়েম, স্পেনের ফেলিসিয়ানো লোপেজরা। মারিয়া শারাপোভা ডোপের দায়ে ও ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা মা হতে যাওয়ার জন্য এমনিতেই সরে গিয়েছেন রিও অলিম্পিক থেকে।

এতজন সরে গেলেও অলিম্পিকের জন্য ভালো খবর হলো, রাফায়েল নাদাল চোট কাটিয়ে রিওতে নামবেন৷ নোভাক জকোভিচ, রজার ফেডেরার, অ্যান্ডি মারেদেরও যোগ দেওয়া নিয়ে সংশয় নেই। মেয়েদের বিভাগে সোনার লড়াইয়ে থাকবেন সেরেনা উইলিয়ামসও।

জিকার ভয়ে গলফের জেসন ডে, ররি ম্যাকলরয়, ডাস্টিন জনসন, জর্ডান স্পিথরাও সরে গিয়েছেন অনেক আগেই।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :