সকাল ১০:৪৪, শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / ১৫ বছর পর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে আরামবাগ
১৫ বছর পর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে আরামবাগ
জুন ২৩, ২০১৬

২০০১ সালের পর ফের ফেডারেশন কাপের ফাইনালে পৌঁছেছে আরামবাগ। সেমিফাইনালে বিজেএমসিকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে তারা।
এদিন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে খেলার ৪ মিনিটেই গোল পেতে পারতো আরামবাগ। বিজেএমসির বক্সে বল নিয়ে ঢুকতে যাচ্ছিলেন আরামবাগের ফরোয়ার্ড জাফর ইকবাল। কিন্তু তাকে আটকাতে গিয়ে বক্সের খুব কাছেই ফেলে দেন প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডার। বিপদজনক এই ফ্রি কিক থেকে প্রথম গোলটা পেয়ে যেতে পারতো তারা। কিন্তু নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড কেস্টার একনের শট বক্সে ক্লিয়ার করেছেন প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডাররা। ফিরতি বলে আবারও শট নেন কেস্টার একন। বক্সে বল পেয়ে শট নেন আকরামুজ্জামান লিটন। গোলরক্ষক আশরাফুজ্জামান হিমেল দৌড়ে এসে বল হাতে নিয়ে নেন।
২৫ মিনিটে সতীর্থের কাছ থেকে লম্বা থ্রু পাস পেয়ে বল নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন আরামবাগের মিডফিল্ডার মো. আব্দুল্লাহ। কিন্তু বলের গতি বেশি থাকায় সুবিধা করতে পারেননি। বল নিজ আয়ত্ত্বে নিয়েছেন গোলরক্ষক হিমেল।

৩৭ মিনিটে প্রায় মাঝ মাঠ থেকে ফ্রি কিক করে বিজেএমসি। বক্সে বল পেয়ে জোড়ালো শটে গোলরক্ষক মিতুল হাসানকে পরাস্ত করেন ফরোয়ার্ড জাকির হোসাইন জিকু (১-০)। ৬৪ মিনিটে পেনাল্টি পায় আরামবাগ। অনুচং মার্মাকে ফাউল করেন সংকর। পেনাল্টি থেকে গোল করেন কেস্টার একন (১-১)।

৬৯ মিনিটে বা প্রান্ত দিয়ে ঢুকে দর্শণীয় শটে লক্ষ্যভেদ করেন একন। স্কোর লাইন হয় (২-১)। এরপর আব্দুল্লাহ পারভেজের ফ্রি কিকে কিংসলে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় বিজেএমসি। কিন্তু গোলের দারুণ সুযোগ নষ্ট করেন বাইবেক। তার শট সাইডপোস্টে লেগে ফেরত আসায় গোল বঞ্চিত হয় বিজেএমসি

ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে আরও একটি সুযোগ নষ্ট করেছেন আব্দুল্লাহ। বল নিয়ে বিজেএমসির বক্সে ঢুকেছিলেন ঠিকই। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বল মেরে দেন পোস্টের বাইরে। ইনজুরি সময়ে বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ে বল জালে ঠেলে দেন আরামবাগের ফরোয়ার্ড জাফর ইকবাল (৩-১)।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :