রাত ২:২৪, শুক্রবার, ২২শে জুন, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / রকিবুল-নাসিরের নৈপুণ্যে টিকে রইল দোলেশ্বর
রকিবুল-নাসিরের নৈপুণ্যে টিকে রইল দোলেশ্বর
জুন ২০, ২০১৬

ডিপিএলের সুপার সিক্সের ম্যাচে সহজ জয় পেয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর। রকিবুল হাসান, নাসির হোসেন, ফরহাদ রেজা, আল আমিনদের নিয়ে সাজানো দোলেশ্বর ৯১ রানে মুমিনুল হক, নাদিফ চৌধুরিদের ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবকে হারিয়েছে। ফলে, শিরোপার আশা বাঁচিয়ে রাখল প্রাইম দোলেশ্বর।

এ জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে থাকা দোলেশ্বর ১৪ ম্যাচ খেলে ৯টি জয় আর ৫টি পরাজয়ে অর্জন করলো ১৮ পয়েন্ট। অপরদিকে, টেবিলের চারে থাকা ভিক্টোরিয়া ১৫ ম্যাচ খেলে আটটি জয়, ছয়টি পরাজয় এবং একটি টাই নিয়ে অর্জন করেছে ১৭ পয়েন্ট। শীর্ষে থাকা আবাহনীর পয়েন্ট ২০। একই পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। আজকের হারের ফলে আপাতদৃষ্টিতে শিরোপার দৌড় থেকে ছিটকে পড়লো ভিক্টোরিয়া।

সোমবার (২০ জুন) ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করে রকিবুল হাসানের সেঞ্চুরি, নাসির ও শচিন বেবির অর্ধশতকে ৫০ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ৩৩৩ রান জড়ো করে ভিক্টোরিয়া। জবাবে, আবদুল মজিদ, জুবায়ের আহমেদ আর মুমিনুল হকের অর্ধশতকের পরও ৪৫.২ ওভারে ২৪২ রান তুলে গুটিয়ে যায় ভিক্টোরিয়ার ইনিংস।

ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারে ইমতিয়াজ হোসেনের (৮) উইকেট হারায় দোলেশ্বর। দ্বিতীয় উইকেটে রকিবুল হাসান-রনি তালুকদার ৭০ রানের জুটি গড়ে ইনিংসের ভিত গড়েন। দলীয় ৭৮ রানে মারজান ভূইয়ার বলে উইকেট দেয়ার আগে রনি করেন ৩৬ রান। রকিবুল হাসান ও শচিন বেবির তৃতীয় উইকেট জুটিটি মূলত দোলেশ্বরকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যায়। এ জুটিতে আসে ১২৪ রান। ৯৬ বলে ১০০ রান করে এনামুল হক জুনিয়রের বলে আউট হন রকিবুল। রকিবুলের বিদায়ের পর বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি শচিন বেবি। ৬৪ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন বেবি।

এরপরই উইকেটে এসে নাসির হোসেনের ধুন্ধুমার ব্যাটিং। মাত্র ৪২ বলেই ৯ চার ও দুই ছয়ে অপরাজিত ৭৪ রান করেন জাতীয় দলের এই ব্যাটসম্যান। আগের ম্যাচে একই মাঠে ৩৭ বলে ফিফটি ছোঁয়া নাসির আজ ৫০ পেরিয়েছেন মাত্র ৩১ বলে।

ইনিংসের শেষ ১৫ ওভারে দোলেশ্বর তুলেছে ১৩২ রান। অবিচ্ছিন্ন ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে মাত্র ২৯ বলেই ৫১ রান যোগ করেছেন নাসির ও জিয়া। জিয়া ১৫ বলে ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন।

লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে অভিষিক্ত মারজান ভূইয়া ও কামরুল ইসলাম রাব্বি নেন দুটি করে উইকেট। অপর উইকেটটি নিয়েছেন এনামুল হক জুনিয়র।

৩৩৪ রানের বিশাল টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয় ভিক্টোরিয়ার। দলীয় ৯৯ রানের মাথায় তাদের প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। ওপেনার আবদুল মজিদ ৭৬ বলে আটটি চারের সাহায্যে ৫০ রান করে বিদায় নেন। আরেক ওপেনার জুবায়ের আহমেদ করেন ৫৬ রান। আর তিন নম্বরে নামা মুমিনুল হকের ব্যাট থেকে আসে ইনিংস সর্বোচ্চ ৬১ রান।

তবে, ভিক্টোরিয়ার আর কোনো ব্যাটসম্যান বড় স্কোর করতে না পারলে পরাজয় মেনে নিতে হয় দলটিকে। নাদিফ ২৪ আর মাহবুবুল আলম ২৫ রান করেন।

দোলেশ্বরের হয়ে সাঞ্জামুল ইসলাম তিনটি, আল আমিন ও রাহাতুল দুটি করে উইকেট দখল করেন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :