সকাল ৯:০৯, রবিবার, ৩০শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / ব্রাদার্সকে হারিয়ে সেমিতে আবাহনী
ব্রাদার্সকে হারিয়ে সেমিতে আবাহনী
জুন ১৯, ২০১৬

ফেডারেশন কাপ ফুটবলের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ২-১ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে আবাহনী লিমিটেড। আবাহনীর হয়ে গোল দুটি করেছেন জুয়েল রানা ও সানডে সিজুবা। আর ব্রাদার্সের হয়ে একমাত্র গোলটি করেছেন অগাস্টিন ওয়ালসন।

রোববার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ফেডারেশন কাপের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাদার্সের বিপক্ষে খেলেতে নেমে কিক অফের শুরু থেকেই আবাহনীর কাঁপন ধরানো এক একটি আক্রমণ ছিল দেখার মতো। প্রথমার্ধের তৃতীয় মিনিটেই ব্রাদার্স গোলবারের ডান দিক দিয়ে দারুণ একটির ক্রস তুলেছিলেন আবাহনীর ইংলিশ ফরোয়ার্ড লি এনড্রিউ টাক। ক্রস থেকে পাওয়া বলটি মাথায় লাগান নাবিব নেওয়াজ জীবন। কিন্তু গোল রক্ষক উত্তম বড়ুয়া তা প্রতিহত করলে গোল বঞ্চিত হয় আবাহনী।

এরপর ১২ মিনিটে আবার আক্রমণে যায় আবাহনী। ব্রাদার্সের গোলবারের বাঁদিক দিয়ে ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে ফয়সাল মাহমুদ ক্রস দিয়েছিলেন লি টাককে। কিন্তু লি টাক কাঙ্খিত গোল এনে দিতে পারেননি দলকে।

এর ৪ মিনিট পর আবার ব্রাদার্সের পেনাল্টি সীমানায় গোলরক্ষককে একা পেয়েও তাকে পরাস্ত করতে না পারলে নিশ্চিত গোল বঞ্চিত হয় আকাশী রঙের জার্সিধারীরা।

তবে আবাহনী যে কাজটি করে দেখাতে পারেনি সেটাই করে দেখায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আবাহনীর একাধিক আক্রমণে প্রথমার্ধের শুরুতে কিছুটা চাপে থাকলেও ৩৫ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে শফিকুল ইসলাম শফির বাড়িয়ে দেয়া বল থেকে জোরালা শটে আবাহনীর জালে বল জড়ান দলটির হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড অগাস্টিন ওয়ালসন। ফলে ব্রাদার্স এগিয়ে যায় ১-০ তে।

গোল করেই বসে ছিল না কোচ বালগোপাল মহার্জনের শিষ্যরা। পুরো মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়েছে প্রথমার্ধের বাদ বাকি সময়।

৬৯ মিনিটে গোলবারের বাঁদিক থেকে কর্নার কিক নেন লি টাক। তার কর্নার থেকে পাওয়া বলটি জীবন লাফিয়ে উঠে হেড করলে বল পড়ে পেনাল্টি বক্সের সামনের জটলায়। আর সেই জটলার ভেতর থেকে বাঁ-পায়ের প্লেসিং শটে বল জড়িয়ে ম্যাচে ১-১ এ সমতা আনেন জুয়েল রানা।

সমতায় ফিরে এগিয়ে যেতে একাধিকবার বল নিয়ে আবাহনী সীমানায় যায় ব্রাদার্স। কিন্তু দলটির রক্ষণদূর্গের সামনে তাদের প্রতিটি আক্রমণই ব্যর্থতায় পরিণত হয়।

তবে ব্রাদার্স ব্যর্থ হলেও সফল হয়েছে আবাহনী। খেলা শেষের ৮ মিনিট আগে গোলবারের ডানদিক দিয়ে ডি-বক্সের ভেতর থেকে ক্রস তুলে দেন লি টাক। আর সেই ক্রস থেকে সানডে সিজুবার জোড়ালো হেড থেকে বল ব্রাদার্স জালে চুমু খেলে ২-১ এ এগিয়ে যায় আবাহনী।

এরপর ম্যাচের বাকি সময় কয়েকটি বিক্ষিপ্ত আক্রমণ চালিয়ে সফল না হলে নির্ধারিত সময় শেষে হারের গ্লানি নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :