সন্ধ্যা ৭:৫৩, বৃহস্পতিবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / জিতেও ভাগ্যের ছোঁয়ার অপেক্ষায় মাশরাফির কলাবাগান!
জিতেও ভাগ্যের ছোঁয়ার অপেক্ষায় মাশরাফির কলাবাগান!
জুন ৭, ২০১৬

ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ জমে উঠেছে বেশ ভালো ভাবেই। শেষ দিনের আগে চারটি দল সুপার সিক্স নিশ্চিত করলেও এখনও দুটি দল চূড়ান্ত হয়নি। বাকি দুটি দল কোনটি হবে সেটা জানতে বুধবার একাদশতম রাউন্ডের শেষ দিনের তিনটি ম্যাচের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।
এমনকি ‍মঙ্গলবার মিরপুর স্টেডিয়ামে কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমিকে ডি/এল মেথডে ২৯ রানে হারিয়েও ভাগ্যদেবীর দিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে মাশরাফির কলাবাগানকে। বৃষ্টির কারণে দুই দিনেও ম্যাচ শেষ করা সম্ভব হয়নি। শেষ পর্যন্ত ম্যাচ রেফারি ডি/এল ম্যাথডে ম্যাচের ফল ঘোষণা করতে বাধ্য হন।
বৃষ্টির কারণে আগের দিন ১৪.২ ওভার খেলা হয়। আগে ব্যাটিং করা কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমি ৪ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ৩৫ রান। মঙ্গলবার দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মেহেদী হাসান মিরাজ(০) ও তাপস ঘোষ (০) রান নিয়ে মাঠে নামেন। তাপস ঘোষ রানের খাতা না খুলেই সাজঘরের পথ ধরেন। অন্যদিকে মিরাজ ২২ রানের ইনিংস খেলেন। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪২ রানের ইনিংস আসে নুরুজ্জামানের ব্যাট থেকে। শেষ পর্যন্ত কলাবাগান একাডেমি ৩৯.২ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১২৮ রান সংগ্রহ করতে সমর্থ হয়।

কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। এছাড়া মাশরাফি, শাহবাজ চৌহান প্রত্যেকে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন।

১২৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে কলাবাগান ক্রীড়া চক্র ২৩ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৯১ রান স্কোরবোর্ডে তুলতেই মিরপুরের আকাশে বৃষ্টি বাগড়া দেয়। দুপুর দেড়টার দিকে খেলা বন্ধ হলেও ম্যাচ রেফারি দুপুর তিনটার দিকে দিনের খেলাটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন। কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৪৭ রান করেন হাসানুজ্জামান। এছাড়া তাসামুল হক ১৭ রান করেন।

ক্রিকেট একাডেমির বোলারদের মধ্যে আবু যায়েদ রাহি দুটি এবং নুর হোসেন একটি উইকেট পেয়েছেন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :