সকাল ৮:৪১, সোমবার, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সৌম্যর ব্যাটে আবাহনীকে হারালো রূপগঞ্জ
সৌম্যর ব্যাটে আবাহনীকে হারালো রূপগঞ্জ
মে ৯, ২০১৬

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে দারুণ জয় পেয়েছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। বৃষ্টি আইনে ২১ রানের জয় পেলো তারা। তবে এদিন দলের জয়ের ভিত গড়ে দেন সৌম্য সরকার। এর ফলে পাঁচ ম্যাচে তিনটি জয় ও এক টাইয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এলো রূপগঞ্জ। অপরদিকে সমান সংখ্যক ম্যাচে তিন জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে রয়েছে আবাহনী।

আবাহনীর দেওয়া ২৫৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই জুনায়েদ সিদ্দিকীকে হারায় তারা। এরপর মোহাম্মদ মিঠুনকে সঙ্গে নিয়ে দারুণ জুটি গড়ে তোলেন সৌম্য সরকার। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দলের পক্ষে ১২৭ রান সংগ্রহ করেন এ দুই ব্যাটসম্যান।

দলীয় ১৩৮ রানে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের বলে বিদায় নেন মিঠুন। ৭৫ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ৭৫ রান করেন তিনি। তবে এদিন দীর্ঘদিন রান খরার পর এদিন সাবলীল ব্যাটিং করেছেন সৌম্য সরকার। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৪ রান করেন তিনি। ৮৯ বলে ৯টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন এ ওপেনার।

এরপর নাহিদুল ইসলামের ২৫ ও অধিনায়ক মোশারফ হোসেনের অপরাজিত ২৫ রানের সুবাদে ৪৬.৪ বলে ২৪৫ রান করে রূপগঞ্জ। এ সময় আলোক স্বল্পতার জন্য কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ রাখেন আম্পায়াররা। তবে এর একটু পরেই বৃষ্টি নামায় মাঠ খেলার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ফলে আর বল মাঠে গড়ানো সম্ভব না হওয়ায় বৃষ্টি আইনে রূপগঞ্জকে ২১ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

এর আগে সোমবার মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে আবাহনী। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালোই করে তারা। উদ্বোধনী জুটিতে দলের পক্ষে ৫৯ রান সংগ্রহ করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। লিটনের বিদায়ের পর ভারতীয় ব্যাটসম্যান মানভিন্দর সিং বিসলাকে নিয়ে ৪১ রানের জুটি গড়ে আউট হন তামিম।

৬৪ বলে ৭টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৫৪ রান করেন তামিম। অধিনায়কের বিদায়ের পর দ্রুতই ফিরে যান বিসলা (২৭)। এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে নিয়ে দারুণ একটি জুটি গড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত। সর্বোচ্চ ১২৫ রানের জুটি গড়েন এ দুই ব্যাটসম্যান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭২ রান করেন শান্ত। ৮২ বলে ৬টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন সৈকত। ৭৫ বলে ৪টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। রূপগঞ্জের পক্ষে ৪৮ রানে ৩টি উইকেট নেন আবু হায়দার রনি। এছাড়া ২টি উইকেট পান তাইজুল ইসলাম।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :