রাত ৩:১২, বুধবার, ২৪শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / মুরালিকে মনে করালেন নাঈম জুনিয়র
মুরালিকে মনে করালেন নাঈম জুনিয়র
মে ২৫, ২০১৬

জন্মগতভাবেই হাত বাঁকা ছিল বিশ্ব ক্রিকেটের কিংবদন্তী স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরনের। সাধারণ মানুষ হাত দুই দিকে ছেড়ে দিলে যেমন একই রেখা বরাবর থাকে, মুরালির তেমনটা থাকতো না। আর তাই বোলিং করতে গেলেই মনে হতো চাকিং করছেন। তাকে নিয়ে বিতর্ক অনেক হলেও, কখনও নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েননি এ স্পিনার। এবার ঢাকা লিগেও সন্দেহের তীর উঠেছে মোহামেডানের স্পিনার নাঈম ইসলাম জুনিয়রের নামে; কিন্তু নাঈম জানালেন অ্যাকশন ত্রুটি নয়, জন্মগতভাবে তার হাত বাঁকা থাকায় মনে তিনি চাকিং করছেন।

বুধবার মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের নাঈম বলেন, ‘এর আগেও আমি ২০১২ সালে সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অভিযুক্ত হয়েছিলাম। এরপর আমি অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় পরীক্ষা দিতে যাই। সেখানে আমি ভালোভাবেই পাশ করেছিলাম। বোলিংয়ে কোন সমস্যা তারা পায়নি। ওখানে ফলাফল এসেছিল আমার হাতটা স্বাভাবিক থেকে একটু বাঁকা। এ কারণে দেখতে একটু এমন মনে হয়; কিন্তু আসলে তা না।’

এদিন ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। মাত্র ২২৪ রানের পুঁজি নিয়েই ৮৮ রানের বড় জয় পায় ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। এ জয় সম্ভব হয়েছে শুধুমাত্র নাইম জুনিয়রের দুর্দান্ত বোলিংয়ে। মাত্র ২১ রানে ৪টি উইকেট তুলে নিয়েছেন এ স্পিনার। ফলে ম্যাচ সেরার পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। শুধু এ ম্যাচে নয় আরও দুটি ম্যাচে মান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছেন এ স্পিনার। অর্থাৎ মোহামেডানের ছয়টি জয়ের অর্ধেকই এসেছে এ নবীনের হাত ধরে।

লিগের শুরুতেই অবৈধ বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অভিযোগ ওঠায় স্বাভাবিকভাবেই জেদ থাকা কথা নাঈমের; কিন্তু বোলিং অ্যাকশন নিয়ে ভাবছেনই না তিনি। সঠিক জায়গায় বোলিং নিয়ে ভাবছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি আসলে ওটা নিয়ে চিন্তাও করি না। এটা লিগ শেষে দেখা যাবে। আমার এখন সব চিন্তা প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে। একটা জায়গায় বল করার চেষ্টা করছি।’

গতবছর থেকেই পেসারদের জোয়ারে হঠাৎ করেই বাঁহাতি স্পিনার সংকটে পড়েছে বাংলাদেশ। তাই ভালো বোলিং করতে পারলে নির্বাচকদের নজরে পড়ে যেতেও পারেন নাঈম। এ কথা ভালো করেই জানেন তিনি। যদিও এ নিয়ে বিন্দুমাত্র ভাবছেন না তিনি। লিগে ভালো কিছু করতে পারাই তার মূল লক্ষ্য।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :