বিকাল ৪:০৯, রবিবার, ১৭ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / ফেডারেশন কাপ স্থগিত
ফেডারেশন কাপ স্থগিত
মে ১৪, ২০১৬

১৫ মে ছিল ফেডারেশন কাপ শুরু হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ। কিন্তু কাবগুলোর অনীহার কারণে শনিবার বাফুফের পেশাদার লিগ কমিটি টুর্নামেন্টটি স্থগিত করেছে।
কাবগুলোতে পাঠানো বাফুফের চিঠিতে বলা হয়েছিল, ‘ফেডারেশন কাপে অংশ নিতে ইচ্ছুক কিনা এটি ১২ মে’র মধ্যে জানাতে হবে। না জানানো হলে ধরে নেওয়া হবে অংশগ্রহণে অনিচ্ছুক।’
এর জবাবে মাত্র তিনটি কাব খেলার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মতি জানিয়ে বাফুফেকে চিঠি দিয়েছে। স্বাধীনতা কাপে এন্ট্রি নিয়ে অনেক নাটক করেছিল শেখ জামাল ও আরামবাগ। কিন্তু ফেডারেশন কাপে এই দুই কাব খেলার সম্মতি জানিয়েছে। এই দুই কাবের সঙ্গে রয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।
প্রিমিয়ার লীগের ১২ দলের মধ্যে মাত্র তিন কাবের সাড়া পাওয়ায় ফেডারেশন কাপ অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে বেশ অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। শেষ পর্যন্ত তা স্থগিত হলো। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘লীগ কমিটির সভায় বেশ কয়েকটি কাব ফেডারেশন কাপের জন্য আগ্রহী ছিল। কিন্তু সে অনুযায়ী আনুষ্ঠানিকভাবে সাড়া পেলাম না। টুর্নামেন্ট আয়োজন এখন সম্ভব নয়, বাংলাদেশের এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের ব্যস্ততা শেষে ফেডারেশন কাপ আযোজন করবো।’
চট্টগ্রাম আবাহনীর ম্যানেজার শাকিল মাহমুদ চৌধুরীর বক্তব্যও অনেকটা একইরকম। তিনি বলেন, ‘জাতীয় দলে আমাদের খেলোয়াড় রয়েছে। ফেডারেশন ম্যাচের দিন খেলোয়াড় ছাড়তে চায়। এভাবে খেলা সম্ভব না।’
তাজিকিস্তানের বিপে এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের প্লে অফ ম্যাচ ২ ও ৭ জুন। ২ জুন অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলার জন্য বাংলাদেশ দলের তিন-চার দিন আগে যাওয়ার পরিকল্পনা। জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের না পাওয়ায় কাবগুলোর অনাগ্রহ ও সামগ্রিক অবস্থার পরিপ্রেেিত ফেডারেশন কাপ পিছিযে গেল।
ঘরোয়া ফুটবলের মৌসুম শুরু হয় সাধারণত ফেডারেশন কাপ দিয়ে। এবার স্বাধীনতা কাপ দিয়ে মাঠে গড়িয়েছে মৌসুম। বাফুফের পরিকল্পনা ছিল লিগের পরে অথবা মাঝে ফেডারেশন কাপ করার। এখন আবার লিগের আগে সেটি আয়োজনের কথা ভাবছে বাফুফে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :