সকাল ১১:০৭, বৃহস্পতিবার, ২৪শে আগস্ট, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / নাফিসের সেঞ্চুরিতে ব্রাদার্সের তৃতীয় জয়
নাফিসের সেঞ্চুরিতে ব্রাদার্সের তৃতীয় জয়
মে ১৪, ২০১৬

শাহরিয়ার নাফিসের ১৩৪ রানের দায়িত্বশীল ইনিংসে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে ক্রিকেট কোচিং স্কুলকে ৩৮ রানে হারিয়ে আসরের তৃতীয় জয় তুলে নিয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ব্রাদার্সের দেয়া ২৫৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ২১৪ রানে গুটিয়ে গেছে এবারের টুর্নামেন্টে কোনো জয় না পাওয়া ক্রিকেটে কোচিংয়ের ইনিংস।

শনিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ক্রিকেটে কোচিং স্কুলের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আর ব্যাটিংয়ে নেমে দুই ওপেনার শাহরিয়ার নাফিসের ১৩৪ ও ইমরুল কায়েসের ৪৯ রানে ভর করে ৬ উইকেটের বিনিমিয়ে ২৫৩ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ পায় ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

ব্রাদার্সের হয়ে ব্যাট হাতে অপর দুই ব্যাটসম্যান জাকির হাসান ২৯ ও তুষার ইমরান খেলেছেন ব্যক্তিগত ২২ রানের ইনিংস। আর বল হাতে ক্রিকেট কোচিংয়ের হয়ে শাওন গাজী ৪টি, মেহরাব হোসেন ও নাসুম আহমেদ নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।

জবাবে জয়ের জন্য ২৫৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় ২৫ রানে দুই ওপেনার পিনাক ঘোষ ও অমিত মজুমদারকে হারিয়ে কিছুটা ব্যাকফুটে চলে যায় ক্রিকেট কোচিং। অমিত ফিরেছেন ব্যক্তিগত ৯ রানে নুর আলমের শিকার হয়ে আর পিনাককে ব্যক্তিগত ১ রানেই ক্রিজ ছাড়া করেছেন মোহাম্মদ শহীদ।

তবে তৃতীয় উইকেটে ক্রিকেট কোচিং রীতিমতো ঘুরে দাঁড়ায়। এই জুটিতে সাইফের সঙ্গে ১৩৯ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের সুবাতাস পাইয়ে দিয়ে ব্যক্তিগত ৬৮ রানে মিলিন্দ কুমারের বলে বোল্ড হয়ে নিজের লম্বা ইনিংসের সমাপ্তি টানেন সালমান। সালমানের পর ব্যক্তিগত ১০ রানে আসিফের বলে সঞ্জিতের তালুবন্দি হয়ে নিজেরে ইনিংসের সমাপ্তি টেনেছেন সাইদ সরকার।

সাইদের পর রানের খাতা না খুলেই আসিফের দ্বিতীয় শিকার হয়েছেন উত্তম সরকার। আর ২৬ বলে ২৬ রানের ইনিংস খেলে নাবিল সামাদের বলে তুষার ইমরানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়েছেন অধিনায়ক রাজিন সালেহ।

তবে দলের হয়ে এদিন একাই লড়ে গেছেন ক্রিকেট কোচিংয়ের টপ অর্ডার সাইফ হোসেন। ১০১ বলে তার ৮৬ রানের ইনিংসে ২১৫ রানের সংগ্রহ পায় ক্রিকেট কোচিং স্কুল। তবে শেষ পর্যন্ত উইকেটে থাকতে পারেননি এই ডানহাতি যুবা ব্যাটসম্যান। ৪৩তম ওভারে রান আউটের ফাঁদে পড়ে ফিরে গেছেন ড্রেসিং রুমে।

ব্রাদার্সের হয়ে বল হাতে আসিফ হাসান, নাবিল সামাদ ও মিলিন্দ কুমার ২টি করে আর মোহাম্মদ শহীদ ও নুর আলম নিয়েছেন ১টি করে উইকেট। বাকি দুই ব্যাটসম্যান হয়েছেন রান আউট। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন শাহরিয়ার নাফিস।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :