বিকাল ৩:৫২, শনিবার, ২৭শে মে, ২০১৭ ইং
/ আইপিএল / কোহলির রেকর্ডের দিনে ব্যাঙ্গালুরুর ১৪৪ রানের জয়
কোহলির রেকর্ডের দিনে ব্যাঙ্গালুরুর ১৪৪ রানের জয়
মে ১৪, ২০১৬

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) মঞ্চটা যেন কোহলির জন্যেই প্রস্তুত করা ছিল। এবি ডি ভিলিয়ার্সের ঝড়ো সেঞ্চুরির পরেও ম্যাচের সবটুকু আকর্ষণ নিজের দিকে টেনে নিয়েছেন বিরাট কোহলি। এবারের আইপিএলের নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরি করে ছাড়িয়ে গেছেন অতীতের সকল রেকর্ডকে। তার এবং ডি ভিলিয়ার্সের সেঞ্চুরির সুবাদেই ২৪৮ রানের বড় সংগ্রহ পায় ব্যাঙ্গালুরু। জবাবে পাহাড়সম রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ১০৪ রানেই গুটিয়ে যায় গুজরাট। ব্যাঙ্গালুরু পায় ১৪৪ রানের বিশাল জয়।
টস জিতে ব্যাঙ্গালুরুকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ব্রেন্ডন ম্যাককালামের গুজরাট লায়ন্স। প্রথম বাবা হওয়ার জন্য স্ত্রীকে সময় দিতে এই ম্যাচ থেকে বিশ্রামে ছিলেন সুরেশ রায়না। কিন্তু রায়নার অবর্তমানে যেন মুদ্রার উল্টোপিঠ দেখতে হলো গুজরাটকে। গেইলকে ৬ রানে আউট করে প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস দিলেও সেগুলোকে নিমিষেই টর্নেডোর মত উড়িয়ে দেয় ডি ভিলিয়ার্স-কোহলি জুটি।
রেকর্ড জুটি গড়ে দুজনই তুলে নেন সেঞ্চুরি। কোহলির থেকে একটু বেশিই ভয়ঙ্কর ছিলেন ডি ভিলিয়ার্স। ১২৯ রানে অপরাজিত থাকার ম্যাচে হাঁকিয়েছেন ১২টি বিশাল ছক্কা। পাশাপাশি ছিল ১০টি চারের মারও। ২২৯ রানের জুটি গড়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের জুটি গড়লেন তারা। এর আগের রেকর্ডটাও তাদের দখলে ছিল। ২০১৫ সালে মুম্বাইর বিপে ২১৫ রানের জুটি গড়েছিল তারা।
২৪৯ রানের ল্েয ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে গুজরাটের ব্যাটসম্যানরা। ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে এদিন ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেন বোলার ক্রিস জর্ডান। ৩ ওভারে ১১ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। ১৮.৪ বলেই মাত্র ১০৪ রান করে অলআউট হয় গুজরাট লায়ন্স।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :