দুপুর ২:৫৩, সোমবার, ২৬শে জুন, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / ভালোই হলো তামিম-লিখনদের প্রস্তুতি
ভালোই হলো তামিম-লিখনদের প্রস্তুতি
এপ্রিল ১৯, ২০১৬

প্রস্তুতি ম্যাচটি দারুণভাবে কাজে লাগালেন তামিম ইকবাল। অবশ্য শুধু তামিম ইকবাল নন তার সতীর্থ মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও দারুণ ব্যাটিং করেছেন। অন্যদিকে প্রতিপক্ষ প্রাইম ব্যাংকের হয়ে একাই লড়াই করেছেন ওপেনরা মেহেদী মারুফ। তিনি খেলেছেন ৭৫ রানের একটি ইনিংস। এদিকে নিয়মিত সুযোগ না পাওয়া লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেন লিখনও সফল। প্রতিপক্ষের চার ব্যাটসম্যানকে সাজঘরের পথ দেখিয়েছেন তিনি।
আগামী ২২ এপ্রিল প্রিমিয়ার লিগের পর্দা উঠছে। সেই লক্ষ্যে দলগুলো নিজেদের মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে। মঙ্গলবার ফতুল্লা খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টসে জিতে আবাহনী অধিনায়ক তামিম ইকবাল ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন। ব্যাটিং নেমেই প্রাইম ব্যাংকের বোলারদের উপর তাণ্ডব চালান তিনি।৯০ বলে ৫টি ছয় ও ১৮টি ছক্কায় তিনি তার ইনিংসটি সাজিয়েছেন।
অন্যদিকে কম যাননি তরুণ ব্যাটসম্যান মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও। তিনি ৬৪ বল খেলে চারটি চার ও তিনটি ছক্কায় ১৩৯ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া অভিষেক মিত্রের ব্যাট থেকে আসে ৩৪ রান। এই তিন ব্যাটসম্যানের ব্যাটিংয়ে আবাহনী ৩২২ রানের বড় পুঁজি সংগ্রহ করে।
প্রাইম ব্যাংকের বোলারদের মধ্যে রুবেল ৫২ রান খরচায় নিয়েছেন একটি উইকেট। অবশ্য সর্বোচ্চ উইকেট নিয়েছেন মনির হোসেন ৪৭ রানে তিনটি। এছাড়া সাব্বির ৩৯ রানে একটি উইকেট নিয়েছেন।
৩২৩ রানের জবাবে খেলতে নেমে প্রাইম ব্যাংক ২৪৭ রান তুলতেই সবকটি উইকেট হারায়। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৯ রান করেন মেহেদী মারুফ। ৭২ বলে ৬টি চারের সাহায্যে তিনি তার ইনিংসটি সাজিয়েছেন। মারুফ ছাড়া বাকি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ইয়াছির রাব্বি কিছুটা চেষ্টা চালান। তিনি ৪৮ বলে করেন ৫৩ রান। এছাড়া প্রাইম ব্যাংকের আইকন ক্রিকেটার সাব্বির রহমান আট রানের বেশি করতে পারেননি।
আবাহনীর বোলারদের মধ্যে উজ্জ্বল জুবায়ের হোসেন লিখন। তিনি ১০ ওভারে ৬০ রান খরচায় এদিন ৪টি উইকেট নিয়েছেন। অবৈধ বোলিং অ্যাকশনে নিষিদ্ধ হওয়া তাসকিন আহমেদ ৭ ওভারে ২৮ রান খরচ করলেও উইকেট পাননি।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :