বিকাল ৩:৩১, বৃহস্পতিবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / সীমাবদ্ধতা জানার পরও বাফুফে নির্বাচনে লোকমান
সীমাবদ্ধতা জানার পরও বাফুফে নির্বাচনে লোকমান
এপ্রিল ১৮, ২০১৬

নিয়ম অনুযায়ী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালকরা অন্য কোনও জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী পরিষদ বা পরিচালনা পরিষদের সদস্য কিংবা অন্য কোনও পদে অধিষ্ঠিত হলে তার বিসিবি পরিচালকের পদটি হারাবেন।
এ নিয়মের ব্যাপারে অবগত বিসিবির পরিচালক ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ডাইরেক্টর ইন চার্জ লোকমান হোসেন ভুঁইয়া। তারপরও তিনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচনে (বাফুফে) সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সহ-সভাপতি পদে মনোনয়নপত্র কিনেছেন।
লোকমান হোসেন ভুঁইয়া ছাড়াও শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের সভাপতি মনজুর কাদের ও নজিব আহমেদ বাফুফের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এই তিনজন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচিত পরিচালক। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করে শেষ পর্যন্ত নির্বাচিত হলে নিয়ম অনুযায়ী তারা বিসিবি পরিচালকের পদ হারাবেন। কিংবা ইচ্ছা অনুযায়ী যে কোনও একটি পদ রাখতে পারবেন।
এ বিষয়ে অবগত আছেন লোকমান হোসেন ভুঁইয়া। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন এখনও অনেক দূরে, আর নির্বাচিত হলে তখন এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে হবে, এখন এটি নিয়ে ভাবার প্রয়োজন নেই।’
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের গঠনতন্ত্রের ১৫.২ ধারা বলা হয়েছে, কোনও পরিচালকের পদ বা অবসান বা শুন্য হবে যদি উক্ত পরিচালক শারীরিক অসুস্থতা, বিদেশ গমন বা যথাযথ কারণ ছাড়া পরিচালনা পর্ষদের টানা ৩টি সভায় অনুপস্থিত থাকেন। তাকে এই ক্ষেত্রে প্রচলিত সকল আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পরিচালনা পরিষদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে।
অথবা বোর্ডের পরিচালক নির্বাচিত হওয়ার অন্য যেকোনও জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী পরিষদ বা পরিচালনা পরিষদের সদস্য বা অন্য কোনও পদে অধিষ্ঠিত হলে তার বিসিবি পরিচালকের পদ শূন্য হবে।
এর ব্যাখ্যায় বিসিবি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরি বলেন, ‘বিসিবির কোনও পরিচালক জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অধিভুক্ত অন্য কোনও ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী পরিষদ বা পরিচালনা পরিষদের সদস্য পদে অধিষ্ঠিত হতে পারবেন না, তাকে যেকোনও একটি বেছে নিতে হবে।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :