রাত ১২:৫০, মঙ্গলবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সান্ত্বনা দেওয়া ছাড়া আমাদের কোনো পথ নেই
সান্ত্বনা দেওয়া ছাড়া আমাদের কোনো পথ নেই
এপ্রিল ২, ২০১৬

ভারতকে হারাতে বেঙ্গালুরুতে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৩ বলে ২ রান। কিন্তু হার্দিক পান্ডের করা শেষ ৩ বলে ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। হাতের নাগালে থাকা ম্যাচ হেরে বসে বাংলাদেশ। ভারতের মাটিতে ভারতকে হারানোর এ রকম সুযোগ কি আর কখনো সামনে আসবে? বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান মনে করেন, ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলে যেতে পারলে এ ধরণের সুযোগ ঘন ঘন আসবে। হাতের নাগালে থাকা এ রকম একটি সুযোগ কেন হারালেন? সাকিবের উত্তর, ওই ম্যাচ কেন হেরেছি সেই ব্যাখ্যা আমার কাছে নেই। আমাদেরও একই প্রশ্ন? ব্যবধানটা যদি বড় হত তাহলে ভুল বের করা যেত। কিন্তু এমন একটা ব্যবধান সেটা থেকে ভুল বের করে আনা কঠিন। আমার বিশ্বাস আমরা যদি সামনে ১০০বারও ওই একই পরিস্থিতির মুখোমুখি হই তাহলে আমরা প্রতিবারই ম্যাচ জিতব। হারের কারণ খুঁজে বের করতে না পারলেও ভারতের বিপে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পেরেছে বাংলাদেশ। আপাতত সাকিব আল হাসানের সান্ত্বনা সেটাই। নিজ মুখে বলেই ফেললেন, ২০০৭ সালের পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখনও বড় কোনও দলকে হারাতে পারিনি। আমাদের অনেক প্রাপ্তি থাকলেও এটাও অনেক বড় অপ্রাপ্তি। তবে আমরা যে আলোড়ন তৈরী করতে পেরেছি তাতে কোনো সন্দেহ নেই। ভারতের বিপে ভালো খেলেছি, প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়তে পেরেছ্।ি আপাতত এভাবে সান্ত্বনা দেওয়া ছাড়া আমাদের কোনো পথ নেই। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের অবস্থা না হয় সেটি হতে পারে আমাদের সবচেয়ে বড় শিা।
আইপিএল খেলতে আগামী ৫ এপ্রিল ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে সাকিব আল হাসানের। বিশ্বকাপের পরপর দেশে ফিরে পরিবারকে একান্ত সময় দিতে কক্সবাজারে চলে গিয়েছিলেন সাকিব। শুক্রবার কক্সবাজার থেকে ফিরেন সাকিব। শনিবার রানার অটোমোবাইলস লিমিটেডের নতুন মোটরবাইক টারবো’র উদ্বোধন করেন সাকিব। আইপিএল নিয়ে সাকিবের উচ্ছ্বাস বরাবরই বেশি। সাকিবের এবারও ইচ্ছে নিজের সেরাটা নিয়ে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ট্রফির স্বাদ দেওয়া।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :