সকাল ৭:৫৮, বুধবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / মিঠুনের ব্যাটে রূপগঞ্জের জয়
মিঠুনের ব্যাটে রূপগঞ্জের জয়
এপ্রিল ২৮, ২০১৬

মোহাম্মদ মিঠুন ও আসিফ হোসেনের দায়িত্বশীল এবং শেষ দিকে আলাউদ্দিন বাবুর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দারুণ জয়ে পেয়েছে লিজেন্ড অব রূপগঞ্জ। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আগের ম্যাচে ভিক্টোরিয়ার সঙ্গে নাটকীয় টাই করার পর প্রথম জয় তুলে নিল দলটি। গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের বিপক্ষে তিন উইকেটের জয় তুলে নেয় তারা।
গাজী গ্রুপের দেওয়া ২৫৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে রূপগঞ্জ। মাত্র ১১ রানেই তিন উইকেট হারায় তারা। তবে পাকিস্তানী ব্যাটসম্যান আসার জাইদিকে নিয়ে চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৯১ রান সংগ্রহ করে দলের চাপ সামলে নেন মোহাম্মদ মিঠুন। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেন মিঠুন। ৯৪ বলে ৭টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। এছাড়া জাইদি করেন ৩৭ রান।
দলীয় ১০২ রানে জাইদির বিদায়ের পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে রূপগঞ্জ। ৪৩.১ ওভারে সাত উইকেটে ২০১ রান করে তারা। এরপর আলাউদ্দিন বাবুকে নিয়ে দুর্দান্ত একটি জুটি গড়ে তোলেন আসিফ হোসেন। শেষ পর্যন্ত এক ওভার বাকি থাকতেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন এ দুই ব্যাটসম্যান।
৭৬ বলে ৩টি চারের সাহায্যে ৫৪ রান করেন আসিফ। এছাড়া ২২ বলে ৩৪ রানের ঝড়ো একটি ইনিংস খেলেন আলাউদ্দিন বাবু। ১টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। গাজী গ্রুপের পক্ষে দেওয়ান সাব্বির, মেহেদী হাসান ও অলক কাপালী ২টি করে উইকেট পান।
এর আগে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। ব্যাটিংয়ে নেমে সূচনাটাও পায় তারা দুর্দান্ত। দুই ওপেনার এনামুল হক বিজয় ও শামসুর রহমান শুভর দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৬৬ রানের সংগ্রহ পায় তারা।
এরপর দ্রুত দুই উইকেট হারালে তৃতীয় উইকেট জুটিতে পাকিস্তানী ব্যাটসম্যান সাঈদ আনোয়ার জুনিয়রকে নিয়ে আরও একটি দারুণ জুটি গড়েন শুভ। ৬৮ রানের জুটি গড়েন এ দুই ব্যাটসম্যান। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় গাজী গ্রুপ।
দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭০ রান করেন সাঈদ আনোয়ার জুনিয়র। ৭৪ বলে ৫টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৯ রান আসে শুভর ব্যাট থেকে। ৮২ বলে ৬টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে এ রান করেন তিনি। এছাড়া ৬৬ বলে ৪২ রান করেন বিজয়। লিজেন্ড অব রূপগঞ্জের পক্ষে মোশারফ হোসেন, আসহার জাইদি ও সৌম্য সরকার ২টি করে উইকেট নেন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :