সকাল ৮:২৫, শনিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ / মাশরাফিতে মুগ্ধ মুস্তাফিজের বাবা
মাশরাফিতে মুগ্ধ মুস্তাফিজের বাবা
এপ্রিল ১, ২০১৬

রুপকথার গল্পকেও যেন হার মানিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরুর প্রথম বছরটা অর্জনে ভরা। গত বছরের ২৪ এপ্রিল আন্তর্জাতিক অভিষেকে (টি-টোয়েন্টি) পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজ ও শহীদ আফ্রিদিকে ফিরিয়ে আগমণী বার্তা দিয়েছিলেন সাতক্ষীরার এ তরুণ। এর পর বিস্ময় মাখানো কাটারে অল্প সময়েই ডালপালা মেলেছে তার শৈল্পিক প্রতিভা।
হোম সিরিজগুলোর পর বিশ্বকাপেও তার স্লোয়ার-কাটারে কেপেঁছে বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানরা। অল্প সময়েই ভেঙ্গেছেন সব বৃত্ত। এবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলতে ৫ এপ্রিল ভারত যাবেন মুস্তাফিজ। সেখান থেকে ইংলিশ ক্লাব সাসেক্সে যোগ দেবেন কাউন্টি খেলতে।
পৃথিবী জুড়ে নাম-ডাক তেঁতুলিয়া গ্রামের এই ছেলেটির। এমন সব অর্জনে মুস্তাফিজের বাবা আবুল কাসেম গাজী খুব আবেগী, ‘মুস্তাফিজ এমন একটা পর্যায়ে চলে গেছে যে, সে এখন কেবল আমার সন্তান নয়; ১৬ কোটি মানুষেরই সন্তান। তাকে ঘিরে সবাই এখন স্বপ্ন দেখে। আমি চাই মুস্তাফিজ আইপিএলে ভালো খেলে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করে আসুক। এই আমার কামনা। সবাই দোয়া করলে ইনশাআল্লাহ ও ভালো করবে।’
প্রসঙ্গটা কেবল মুস্তাফিজকে ঘিরেই থাকেনি। মুস্তাফিজ প্রসঙ্গে কথা বলার ফাঁকেই আবুল কাসেম গাজী নিজ থেকেই তুললেন বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার প্রসঙ্গ। খুলনায় যখন জিম্বাবুয়ের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছিল বাংলাদেশ তখন খেলা দেখতে এসেছিলেন মুস্তাফিজের বাবা। তখনই প্রথমবার মাশরাফির সঙ্গে সাক্ষাৎ।
দেড় ঘন্টা কথা হয়েছিল পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। মাশরাফি কত বড় মাপের মানুষ সেটি মুস্তাফিজের বাবা ওই সাক্ষাতেই বুঝে গিয়েছিলেন। মাশরাফি সম্পর্কে নিজ থেকেই বললেন, ‘আমি সমস্ত প্লেয়ারদের সাথেই সাক্ষাৎ করেছি। সবাই খুব ভালো। আর মাশরাফি তো অমায়িক মানুষ। তার তো কোনো তুলনাই হয় না, অসাধারণ মানুষ। খুলনায় টি-২০ খেলতে আসার পর দেখা হয়েছিল। ইনশাআল্লাহ সামনে আমার বাড়িতে আসবে। মাশরাফি কেবল বাংলাদেশের অধিনায়ক না সে বাংলাদেশের অনন্য একজন মানুষ। তার আচার-আচরণ, ব্যবহার অসাধারণ। যা আমাকে মুগ্ধ করেছে। দেড়ঘন্টার কথাবার্তার মাঝে তার যে আচরণ দেখলাম…অসাধারণ একটা ছেলে।’
মাশরাফি যাতে সুস্থ থেকে আরও কয়েকবছর বাংলাদেশকে সেবা দিতে পারেন এ প্রত্যাশা মুস্তাফিজের বাবার, ‘মাশরাফি অনেকদিন খেলুক বাংলাদেশ দলে সেই কামনা করি। মাশরাফিসহ দলের সব ক্রিকেটার আমার কাছে সন্তানের মতো। সবার জন্য আমার দোয়া থাকে।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :