রাত ২:০৫, মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / মনোনয়নপত্র জমা দিল প্রার্থীরা
মনোনয়নপত্র জমা দিল প্রার্থীরা
এপ্রিল ১৮, ২০১৬

নির্বাচনী উত্তাপটা বেশ ভালো ভাবেই বইছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) পাড়ায়। মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের পর সোমবারও বাফুফে ভবন ছিল সরগরম। জমজমাট এক লড়াইয়ের আভাসই যেন মিলছে।
আগামী ৩০ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্বাচন। চার বছর পরপর অনুষ্ঠিত হওয়া এই নির্বাচনে গত আট বছরে দুই দফায় সভাপতি পদে নির্বাচিত ছিলেন কাজী সালাউদ্দিন আহমেদ। এর আগে (দ্বিতীয়বার) সালাউদ্দিন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তবে এবার তার বিপে লড়বেন নরসিংদী-২ আসনের সংসদ সদস্য কামরুল আশরাফ খান। আসন্ন নির্বাচনে সালাউদ্দিন প্যানেলের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবেই ধরা হচ্ছে ‘ফুটবল বাঁচাও’ পরিষদের এই সংগঠককে। নরসিংদী জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি হয়ে এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন কামরুল আশরাফ খান। সোমবার তিনি বর্তমান সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাাৎ করেন। গত শনিবার সকালে বাফুফে ভবন থেকে এক লাখ টাকার বিনিময়ে সভাপতির মনোনয়ন কেনেন কামরুল আশরাফ। নরসিংদির এই সংসদ সদস্য জানান, ফুটবলকে ভালোবাসি বলেই আমি সভাপতি নির্বাচন করছি। যদি সভাপতি নির্বাচিত হই, তাহলে ফুটবলকে অনেক উপরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করব। সভাপতি পদের জন্য মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন আরও দুই জন। এই দুই প্যানেল ছাড়াও এককভাবে নির্বাচন করতে সভাপতি পদে মনোনয়ন কিনেছেন গোলাম রব্বানী হেলাল ও টঙ্গী ক্রীড়া চক্রের সভাপতি নুরুল ইসলাম নুরু। সিনিয়র সহ-সভাপতি পদের জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন আব্দুস সালাম মুর্শেদী, মনজুর কাদের, লোকমান হোসেন ভুঁইয়া ও দেওয়ান শফিউল আরেফীন টুটুল। সহ-সভাপতি পদের জন্য মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন কাজী নাবিল আহমেদ এমপি, তাবিথ আউয়াল, বাদল রায়, আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরী এমপি, মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, শেখ মুহম্মদ মারুফ হাসান, মো. খুরশিদ আলম বাবুল, একেএম মমিনুল হক সাঈদ, আশরাফ উদ্দিন আহমেদ চুন্নু, দেওয়ান শফিউল আরেফীন টুটুল, লোকমান হোসেন ভুঁইয়া ও নজিব আহমেদ।
এদিনই ছিল মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ সময়। আর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত। বাফুফের প থেকে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে ২১ এপ্রিল।
এবার সভাপতি পদের মনোনয়ন পত্রের দাম নির্ধারণ করা হয় ১ লাখ টাকা। সিনিয়র সহ-সভাপতি ৭৫ হাজার, সহ-সভাপতি ৫০ হাজার ও সদস্য পদের মনোনয়নপত্রের দাম ধরা হয় ২৫ হাজার টাকা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :