রাত ৮:৩৩, রবিবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ / আমার চেহারা আসল, ওয়ার্নের নয়: স্যামুয়েলস
আমার চেহারা আসল, ওয়ার্নের নয়: স্যামুয়েলস
এপ্রিল ৪, ২০১৬

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর মারলন স্যামুয়েলস এক হাত নিয়েছেন শেন ওয়ার্নকে। কিংবদন্তি লেগ স্পিনার ও এখন ধারাভাষ্যকার ওয়ার্নের সমালোচনার কড়া জবাব দিয়েছেন ফাইনালের ম্যাচ সেরা এই ব্যাটসম্যান। রোববার ইডেন গার্ডেন্সের ফাইনালে ১৫৬ রান তাড়ায় ১১ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেখান থেকে বলতে গেলে একাই দলকে জয়ের দুয়ারে নিয়ে যান স্যামুয়েলস। শেষ ওভারে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের টানা চার ছক্কায় ট্রফি জিতে নেয় ক্যারিবিয়ানরা। অপরাজিত ৮৫ রানের ইনিংসে ম্যান অব দা ম্যাচ স্যামুয়েলসই।
ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনু্ষ্ঠানে নাসের হুসেইনের কাছে প্রতিক্রিয়া জানানোর সময় সবাইকে চমকে দিয়ে হুট করেই ওয়ার্নকে টেনে আনেন স্যামুয়েলস।
“আজ সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর একটি ব্যাপারই আমার মাথায় ছিল। শেন ওয়ার্ন আমাকে নিয়ে খুব বেশিই কথা বলে আসছে। আমি বলতে চাই, এটি (হাতে ধরা ম্যাচ-সেরা ট্রফি দেখিয়ে) শেন ওয়ার্নের জন্য। আমি ব্যাট হাতে জবাব দেই, মাইক্রোফোনে নয়।”
গত ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ দু:স্বপ্নের মত কেটেছে স্যামুয়েলসের। ৫ ইনিংসে করেছিলেন মোট ৩৫ রান, একবার ছুঁতে পেরেছিলেন দু অঙ্ক। স্যামুয়েলসের ব্যাটিং ও সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে শরীরী ভাষা নিয়ে তখন সমালোচনা করেছিলেন ধারাভাষ্য কক্ষে থাকা ওয়ার্ন।
এবার বিশ্বকাপের মূল লড়াই শুরুর আগে প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গত ১৩ মার্চ সেই ম্যাচে প্রথম বলেই বোল্ড হয়েছিলেন স্যামুয়েলস। সেই প্রস্তুতি ম্যাচের কথাও ভাবনায় ছিল স্যামুয়েলসের।
“অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অনুশীলনে (ম্যাচে) আমি ডাগ আউটে যে চেয়ারে বসে প্রথম বলেই আউট হয়েছিলাম, ঠিক করেছিলাম আজ সেই চেয়ারে বসব এবং স্পেশাল কিছু করব।”
পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে ওয়ার্নকে অমন আক্রমণ করার পর সংবাদ সম্মেলনও যথেষ্ট রসালো হওয়ার কথা; সেটা হয়েছেও। বলেছেন, ম্যাচটি ছিল তার কাছে ওয়ার্নকে জবাব দেওয়ার ম্যাচ।
“গত ৫ বছরে আমার অনেক ঝড়-ঝাপটার ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে। এখন আমি প্রতিটি দিন উৎসর্গ করি আমার বাচ্চাদের। মাঠে গিয়ে প্রতিদিন ক্রিকেট খেলি আমার সন্তানদের জন্য। তবে সত্যি বলতে, এই ম্যাচটি আমি খেলেছি শুধু শেন ওয়ার্নের জন্য। কয়েকজন সতীর্থকে বলেও ছিলাম সেটি।”
“অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ খেলতে গিয়েছিলাম, শেন ওয়ার্ন আমাকে নিয়ে অনেক কিছু বলেছে। আমি তাকে কখনোই অশ্রদ্ধা করিনি। কিন্তু মনে হয়, তার ভেতরে অনেক কিছু জমা হয়ে আছে যেগুলো বের হয়ে আসা উচিত।”
ওয়ার্নের প্লাস্টিক সার্জারি করা নিয়েও খোঁচা দিতে ছাড়েননি জ্যামাইকান এই ব্যাটসম্যান। “আমাকে নিয়ে তার ক্রমাগত কথা বলে যাওয়া এবং যা করে আসছে, সেসব করে যাওয়া আমি সমর্থন করি না। জানি না সে কেন করছে। হয়ত কারণ আমার চেহারাটা আসল, তারটি নয়!”
শুধু ওয়ার্ন নয়, ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই দলকে নিয়ে নানা সময়ে নানা সমালোচনা করা সবার উদ্দেশ্যেই বার্তা আছে স্যামুয়েলসের। “অনেক লোকেরই আজ নিজেদের প্রতি সৎ থেকে আমাদের প্রাপ্য কৃতিত্বটা দেওয়া উচিত। আমরা দারুণ একটি দল। খেলাটার প্রতি আবেগ, ভালোবাসা থেকেই আমরা খেলি, নিজেদের জন্য নয়। ক্যারিবিয়ার মানুষদের জন্য খেলি। ক্রিকেট যেমন ভারতের ধর্মের মত, ক্যারিবিয়াতেও ক্রিকেট মানেই সব কিছু।”



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :