রাত ৮:২২, রবিবার, ২৮শে মে, ২০১৭ ইং
/ Top News / জয়ের প্রত্যাশায় মাঠে ময়দানে তারকারা
জয়ের প্রত্যাশায় মাঠে ময়দানে তারকারা
মার্চ ৬, ২০১৬

চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে সেমিফাইনালে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মত এশিয়া কাপ জয়ের স্বপ্ন নিয়ে ফাইনালে আজ ইন্ডিয়ার সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। এ উপলক্ষে গোটা দেশ মেতে উঠেছে বাঁধভাঙা আনন্দে। দল মত নির্বিশেষে সকলের মাঝেই এখন উৎসবের আমেজ। পুরো জাতি আজ তাকিয়ে দেশের সূর্য সন্তানদের দিকে। দেশপ্রেম আর ক্রিকেটকে ভালোবেসে ১৮ কোটি মানুষের একটাই চাওয়া- জিতে যাক বাংলাদেশ!

আর টাইগারদের সমর্থনে সাধারণ মানুষদের মতো সামিল হয়েছেন তারকারাও। কেউ সরাসরি মাঠে বসেই উপভোগ করবেন মাশরাফি বাহিনির দুর্দান্ত লড়াই। কেউ আবার টিকিট না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে যেখানে সুযোগ পাবেন সেখানেই মেতে উঠবেন ‘জয় বাংলা, হালুম…. স্লোগানে।

যে যেখানেই থাকুন, যেভাবেই খেলা দেখুন সকলেরই প্রত্যাশা এবারে এশিয়ার সেরা হবে বাংলাদেশ। আজকের ম্যাচ নিয়ে শোবিজের তারকাদের ভাবনা-প্রতিক্রিয়া রইল বিনোদনের পাঠকদের জন্য

রিয়াজ
মাঠে বসে খেলা দেখার ইচ্ছে থাকলেও সেটা হচ্ছে না। তবে আমি বাসা কিংবা অফিস যেখানেই থাকি না কেন অবশ্যই খেলা দেখবো। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি আজ বাংলাদেশ ভারতকে বধ করবে। সাবাশ বাংলাদেশ, সাবাশ ক্যাপ্টেন মাশরাফি এবং তার লড়াকু সৈনিকরা।

শাবনূর
ক্রিকেট আমার খুব পছন্দের খেলা। কোনো সময় স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখা হয়নি। এবার কাছের এক বন্ধু বলেছিলেন মাঠে বসে খেলা দেখার জন্য কিন্তু আমি রাজি হইনি। কারণ আমার ছেলে আইজান এখনো ছোট। তাকে নিয়ে লাখো দর্শকের সারিতে যাওয়াটা ঠিক হবে না। তবে বাসায় আমি, আমার মা ও পরিবারের সবাই মিলে আজকের খেলা দেখবো। আমার বিশ্বাস আজ বাংলাদেশ ভারতকে হারাতে সক্ষম হবে।

ওমর সানি
আজ মিরপুর মাঠে টাইগারদের সাপোর্ট দিতে গ্যালারিতে থাকব আমি, মৌসুমিসহ আমার ছেলে মেয়ে। সবাইকে নিয়ে হাজির থাকবো বিজয়ের প্রত্যাশায়। এ দেশটা আমার-আমাদের, বাংলাদেশ জিতে গেলে গর্বটাও হবে আমার এবং আমাদের। মাঠে লড়বে মাশরাফি বাহিনি সঙ্গে থাকবো সারাদেশ। অল দ্য বেস্ট বাংলাদেশ।

চঞ্চল চৌধুরী
নাট্য নির্মাতা বৃন্দাবন দাসের বাসায় আমি তার পরিবারসহ সবাই একসাথে বসে আজকের খেলা উপভোগ করবো। মনে প্রাণে বিশ্বাস করি আমাদের খেলোয়াররা শুধু ইন্ডিয়া কেনো বিশ্বের যেকোনো দেশকে হারানো সামর্থ্য রাখে। এবং আজ তারা তাদের যোগ্যাতার স্বাক্ষর রাখবে মিরপুর স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশ দলের জন্য শুভকামনা।

সুজানা জাফর

খুব বেশি মাঠে গিয়ে খেলা দেখা হয় না। আজ বাসায় খেলা দেখবো। অন্তরের অন্তস্থল থেকে চাই বাংলাদেশ জিতে যাক। কারণ আমাদের প্রিয় এই দেশটি বিশ্ব ভুবনে ক্রিকেট দিয়েই অনেক কিছু অর্জন করেছে। আজ বাংলাদেশ এশিয়া কাপ জিতে বিশ্বের কাছে নতুন করে বাংলাদেশকে তুলে ধরবে এটাই প্রত্যাশা।

নিরব
আজ মাঠে বসে খেলা দেখবো সেজন্য কোনো কাজ রাখিনি। প্রায় সময় সুযোগ পেলেই মাঠে বসে খেলা দেখি। মজার ব্যাপার হচ্ছে আমি যেদিন মাঠে যাই সেদিনটা বাংলাদেশের জন্য লাকি থাকে। কারণ অধিকাংশ সময়ই বাংলাদেশ জিতে যায়। আজো বাংলাদেশ জিতে যাবে ইনশাল্লাহ। হা হা হা…

প্রভা
আজ সত্যি আমি মাঠে বসে খেলা উপভোগ করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু হায়! টিকেট সংগ্রহ করতে পারিনি। কি আর করা? তবে মাঠে যেতে পারবো না সেটা ভেবে খারাপ লাগলেও আরো বেশি ভালো লাগছে যে বাংলাদেশ এতোগুলো শক্তিশালী দলকে পরাজিত করে প্রথমবারের মত ফাইনালে উঠেছে। আমার মন বলছে আজকের খেলার ইন্ডিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেট আকাশে নতুন সূর্য উঠবে। এটাই প্রত্যাশা রইলো।

আরফিন রুমি
আমি নিজেও একজন ক্রিকেটার ছিলাম। ২০০৫ সালে কাঁঠালবাগান ক্লাবের হয়ে ফার্স্ট ডিভিশন লিগও খেলেছি। এটা বলার অপেক্ষা রাখেনা যে দল ফাইনালে উঠলে সমর্থকদের চাওয়া কিংবা প্রত্যাশা কতখানি বেড়ে যায়। যখন খেলতাম এ ব্যাপারটা নিজেকে দিয়ে অনেকবার অনুধাবণ করেছি। মাঠে বসে খেলা দেখা হচ্ছেনা এবার। তবে আমার দেশ এবারের আসরে শিরোপা জিতবে সেই প্রত্যাশা আছে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :