সকাল ৭:১৮, রবিবার, ৩০শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / সমালোচকদের জবাব দিলেন শারাপোভা
সমালোচকদের জবাব দিলেন শারাপোভা
মার্চ ১৩, ২০১৬

নিষিদ্ধ ড্রাগ নিয়েছিলেন মারিয়া শারাপোভা, এমন তথ্য তিনি নিজেই মিডিয়ার সামনে প্রকাশ করেছিলেন। জানিয়েছিলেন যা ঘটেছিল তার পিছনে নিজের গাফলতি সবচেয়ে বড় কারণ। কিন্তু তার সততা নিয়ে যারা প্রশ্ন তুলছেন, সেই সমালোচকদের এবার কড়া জবাব দিলেন শারাপোভা
ইংল্যান্ডে একটি পত্রিকা দাবি করেছিল রুশ টেনিস সুন্দরীকে ‘মেলডোনিয়াম’ ওযুধটি নিষিদ্ধ হয়ে যাওয়া নিয়ে পরপর পাঁচ বার সর্তক করা সত্ত্বেও তাতে তিনি কান দেননি। ইঙ্গিত দেওয়া হয়, শারাপোভা জেনেবুঝেই ওষুধটি খাচ্ছিলেন এবং ধরা পড়ায় দায় ঝেড়ে ফেলার চেষ্টা করছেন। আর এতেই অসম্ভব ক্ষুব্ধ শারাপোভা।
টেনিস কোর্টে শারাপোভার ফেরা নিয়ে প্রবল অনিশ্চয়তার মধ্যে কোর্টের বাইরের এই চ্যালেঞ্জের জবাব দিয়েছেন তিনি। শুক্রবার নিজের ফেসবুকে বিশাল পোস্ট করে সরাসরি কথা বলেছেন নিজের ভক্তদের সঙ্গে। লিখেছেন, ‘মানছি আমার আরও সতর্ক হওয়া উচিৎ ছিল। সেখানে আমি ভুল করেছি। কিন্তু যারা বলছেন আমাকে পাঁচ বার সতর্ক করা হয়েছিল, সেই সতর্ক করার ধরনটা কেমন ছিল, সেটা জানাতে চাই।’
শারাপোভার দাবি, তাকে ডব্লিউটিএ ও আইটিএফ যে সব ই-মেল পাঠায় তার মধ্যে ছিল টেনিস সংক্রান্ত নানা খবরাখবর, জন্মদিনের শুভেচ্ছাবার্তা। কোথায় কী নতুন হচ্ছে তার খবর। এরই সঙ্গে নিষিদ্ধ ওষুধ নিয়েও কিছু তথ্য।
শারাপোভার লেখায়, ‘১৮ ডিসেম্বর একটি ই-মেল পাই। যার শিরোনাম ছিল, ‘প্লেয়ার্স নিউজ’। তাতে র‌্যাঙ্কিং, টুর্নামেন্টের খবর, নানা বুলেটিন, জন্মদিনের শুভেচ্ছা, ইত্যাদির সঙ্গে ডোপিং সংক্রান্ত নিয়মের পরিবর্তনের কথাও ছিল। ওই ই-মেলে এত কিছু ছিল যে সেখান থেকে মেলডোনিয়াম নিয়ে সতর্কবার্তা অনেকটা অপরিস্কার। এর পর তিনি বেশ ঝাঁঝালো ভাবে যোগ করেছেন, ‘‘হতে পারে মিডিয়ায় কেউ কেউ এটাকে সতর্ক করে দেওয়া বলবেন, কিন্তু সাধারণ ভাবে বেশির ভাগ মানুষেরই মনে হবে এত কিছুর মধ্যে মেলডোনিয়াম নিয়ে এক লাইনের তথ্য খুঁজে পাওয়া রীতিমতো কঠিন।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :