সকাল ৭:০৬, বৃহস্পতিবার, ২৫শে মে, ২০১৭ ইং
/ এশিয়া কাপ / ফাইনাল নিশ্চিতে ভারতের টার্গেট ১৩৯
ফাইনাল নিশ্চিতে ভারতের টার্গেট ১৩৯
মার্চ ১, ২০১৬

এশিয়া কাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে ফেভারিট ভারতের মুখোমুখি হয় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। বাঁচা-মরার ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে লঙ্কানরা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালেও শ্রীলঙ্কা রানের চাকা ঠিকভাবেই ঘোরাতে থাকেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে তারা ১৩৮ রান তুলেছে। বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দলটির হয়ে ব্যাটিং শুরু করেন ৩৭ ম্যাচ খেলা দিনেশ চান্দিমাল এবং ৭৩ ম্যাচ খেলা তিলকারত্নে দিলশান।
ইনিংসের তৃতীয় ওভারে আশিস নেহারার বলে উইকেটের পেছনে থাকা ধোনির গ্লাভসবন্দি হন দিনেশ চান্দিমাল। বিদায় নেওয়ার আগে এই ইনফর্ম ব্যাটসম্যান ১১ বলে করেন মাত্র ৪ রান। দলীয় ৭ রানের মাথায় ওপেনার চান্দিমাল বিদায় নেন। এরপর উইকেটে থেকে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন জয়সুরিয়া ও দিলশান। তবে, ইনিংসের চতুর্থ ওভারে জাসপ্রিত বুমরাহর শিকার হয়ে উইকেটের পেছনে ধোনির হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন জয়সুরিয়া (৩)। দলীয় ১৫ রানের মাথায় দুই উইকেট হারানো শ্রীলঙ্কা টপঅর্ডারের তৃতীয় ব্যাটসম্যানকে হারায় দলীয় ৩১ রানের মাথায়। তৃতীয় ব্যাটসম্যান হয়ে সাজঘরে ফেরেন দিলশান। হারদিক পান্ডের করা ইনিংসের সপ্তম ওভারের প্রথম বলেই অশ্বিনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ১৬বলে ১৮ রান করা দিলশান।
ইনিংসের ১১তম ওভারে হারদিক পান্ডে বোল্ড করেন ম্যাথুজকে। বিদায় নেওয়ার আগে লঙ্কান দলপতি ১৯ বলে তিনটি বাউন্ডারিতে করেন ১৮ রান। এরপর জুটি গড়েন কাপুগেদারা ও শ্রীবর্ধানে। ৩১ বলে ৪৩ রান যোগ করেন স্কোরবোর্ডে। ইনিংসের ১৭তম ওভারে অশ্বিনের বলে রায়নার তালুবন্দি হয়ে বিদায় নেন ১৭ বলে ২২ রান করা শ্রীবর্ধানে। একই ওভারের শেষ বলে রান আউট হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন দাসুন শানাকা (১ রান)।
১৮তম ওভারে জাসপ্রিত বুমরাহ ফেরান ৩০ রান করা কাপুগেদারাকে। পান্ডের তালুবন্দি হওয়ার আগে ৩২ বলে তিনটি বাউন্ডারি হাঁকান। ১৯তম ওভারে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়েন থিসারা পেরেরা। তবে, অশ্বিনের বলে আউট হওয়ার আগে মাত্র ৬ বল থেকে দুই চার ও এক ছয়ে ১৭ রান করেন পেরেরা। মিরপুর স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন টিম ইন্ডিয়ার দলপতি মহেন্দ্র সিং ধোনি। ম্যাচটি জিতলেই টিম ইন্ডিয়ার ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত হয়ে যাবে। অন্যদিকে, দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কোহলিদের বিপক্ষে হেরে গেলে লঙ্কানদের টুর্নামেন্টে টিকে থাকাটিই ঘোর অনিশ্চয়তার মাঝে পড়বে!
প্রথম দুই ম্যাচে দাপুটে জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজক ভারত। আর আরব আমিরাতের বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয়ের পর স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে তিন নম্বরে লঙ্কানরা। মূলপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে (৩ মার্চ) আমিরাতের মুখোমুখি হবে টিম ইন্ডিয়া। পরদিন পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবেন ম্যাথিউস-চান্দিমালরা। বলা বাহুল্য, দুই ম্যাচ শেষে পয়েন্ট সমান হলেও শ্রীলঙ্কার চেয়ে রান রেটে পিছিয়ে শহীদ আফ্রিদির পাকিস্তান।
টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি লড়াইয়ে লঙ্কানদের চেয়ে খানিকটা এগিয়ে ভারত। ৯ বারের দেখায় পাঁচটিতে ভারত ও চার ম্যাচে জয় পায় লঙ্কানরা। অার প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপ টি-২০ ফরমেটে হওয়ায় সংক্ষিপ্ত সংস্করণের এ টুর্নামেন্টে এবারই প্রথম মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। ফিটনেস সমস্যায় বাংলাদেশের পর এবার ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেও খেলতে পারছেন না নিয়মিত অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা।
ভারত একাদশ: মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি, সুরেশ রায়না, যুবরাজ সিং, হার্দিক পান্ডে, রবিন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জাসপ্রিত বুমরাহ ও আশিষ নেহরা।
শ্রীলঙ্কা একাদশ: অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (অধিনায়ক), দিনেশ চান্দিমাল, তিলকরত্নে দিলশান, শিহান জয়সুরিয়া, মিলিন্ডা সিরিবর্ধনে, দাসুন শানাকা, চামারা কাপুগেদারা, থিসারা পেরারা, নুয়ান কুলাসেকারা, রঙ্গনা হেরাথ ও দুশমান্থা চামিরা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :