রাত ৮:৩৭, রবিবার, ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ এশিয়া কাপ / ইতিহাস থেকে এক পা দূরে বাংলাদেশ
ইতিহাস থেকে এক পা দূরে বাংলাদেশ
মার্চ ৫, ২০১৬

আমিনুল হক মল্লিক : আর মাত্র একটি ম্যাচ। এশিয়া কাপের ফাইনালে রোববার ভারতকে হারাতে পারলেই নতুন ইতিহাস গড়বে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের শিরোপা উঠবে বাংলাদেশের ঘরে। ২০১২ এশিয়া কাপে শিরোপার খুব কাছে গিয়েও স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় পুড়েছিল বাংলাদেশ। ফাইনালে পাকিস্তানের বিপে ২ রানের সেই হারের পর সাকিব-মুশফিকদের কান্না কাঁদিয়েছিল গোটা দেশকেও। চার বছর পর সেই পাকিস্তানকে হারিয়েই বাংলাদেশ দ্বিতীয়বারের মতো এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছে। সেই সঙ্গে ২০১২ সালের ফাইনালে হারের তে দিয়েছে সান্ত্বনার প্রলেপ। এখন স্বপ্নের শিরোপা থেকে মাত্র এক কদম দূরে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।
টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অনুষ্ঠানরত এবারের এশিয়া কাপে ভারতের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল বাংলাদেশ। এরপর ঘুরে দাঁড়ানোর গল্পটাও তো সবার জানা। সংযুক্ত আরব আমিরাত, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানকে হারিয়ে স্বপ্নের ফাইনালে। ভারতের বিপে ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের পাঁচটি জয় থাকলেও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলে হার সব কটিতেই। রোববার ফাইনালের আগে বাংলাদেশ অনুপ্রেরণা নিতে পারে তাই ওয়ানডে থেকেই। গত বছর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ভারতকে ২-১-এ হারানোর স্মৃতিটা এখনো টাটকাই। ২০১২ সালে তো এই এশিয়া কাপেই ভারতকে উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। মিরপুরে সেদিন শচীন টেন্ডুলকারের শততম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি ম্লান হয়ে গিয়েছিল তামিম, সাকিব, নাসির, মুশফিকদের দারুণ ব্যাটিংয়ের কাছে। ২০১২ এশিয়া কাপের সেই সুখস্মৃতি রোববার ফাইনালেও ফিরবে?
শনিবার ম্যাচ পুর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে টাইগারদের দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, নিজেদের স্বাভাবিক থেকেই বিশ্বের এক নম্বর দলের বিপে মুখোমুখি হতে হবে। ফাইনালে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী লাল-সবুজের দলপতি। সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি জানান, কোনো সন্দেহ নেই ভারত টি-টোয়েন্টির এক নম্বর দল। তারা শুধু টি-টোয়েন্টি ফরমেটেই নয়, টেস্ট এবং ওয়ানডেতেও ভালো মানের দল। তাদের ব্যাটিং অর্ডার বেশ শক্তিশালী। টপঅর্ডারের ছয়জন ব্যাটসম্যান রয়েছে যারা যেকোনো জায়গা থেকে ম্যাচ বের করে নিতে পারেন। তবে, আমাদের বোলাররা ছেড়ে কথা বলবে না। ফাইনালে তাদের ব্যাটসম্যানদের আটকানোর কোনো বিকল্প নেই। নিজেদের পাওয়ার প্লে’র ছয় ওভারকে গুরুত্ব দিয়ে ম্যাশ জানান, ভারতের বিপে আমরা প্রথম ছয় ওভার ভালো বল করতে চাই। এটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অপরদিকে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন ভারতীয় টিম ম্যানেজার রবি শাস্ত্রী। তিনি বাংলাদেশকে নিজ মাটিতে কঠিন প্রতিপ হিসেবেই মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, এশিয়া কাপে বাংলাদেশের সঙ্গে প্রথম ম্যাচটি অনেক কঠিন ছিল। আর সেই ম্যাচে জয়ী হয়ে শুরু করাটাও ভারতের জন্য ছিল গুরুত্বপূর্ণ। আমরা শুরুতে সেই ম্যাচে চাপেই ছিলাম। শেষ ১০ ওভারে ঘুরে দাঁড়াই। রোববারের ম্যাচে বোলিং ও ব্যাটিংয়ের মাঝে সঠিক ভারসাম্য আনাটাই জরুরি। তবে বাংলাদেশ নিজ মাঠে শক্ত প্রতিপ। বাংলাদেশের ‘হোম ক্রাউড’-এ খেলা। এ নিয়ে ভারত কোনও চাপে রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে রবি শাস্ত্রী বলেন, এ নিয়ে আমরা চিন্তিত নই। আমরা বড় দর্শকদের সামনে খেলতে অভ্যস্ত।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :