সন্ধ্যা ৭:৫৩, বৃহস্পতিবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ / ইডেন গার্ডেনে মুস্তাফিজ বন্দনা
ইডেন গার্ডেনে মুস্তাফিজ বন্দনা
মার্চ ২৬, ২০১৬

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ ওভারে ২২ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নিয়ে রীতিমতো সোরগোল ফেলে দিয়েছেন বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান।

তার ক্যারিয়ার সেরা টি-টোয়েন্টি বোলিং দেখে শুধু বাংলাদেশরই নয়, মুগ্ধ ভারতের সমর্থকেরাও। ‘দেখেচো ও দারুণ বল করেচে? এত ভালো বোলিং! ওমা! সত্যি অবাক হয়ে গেচি’। বলছিলেন সান্ত্বনা নামে এক কুমারী।

অঞ্জন নামে কলকাতার আরেক সমর্থক বললেন, সত্যিই তোমরা দারুণ একজন বোলার পেয়েচো। কি কাটার মারচে! ওরা (নিউজিল্যান্ডে) তো বল চোখেই দেখতে প‍াচ্ছে না।

এভাবেই কলকাতার দর্শকদের মুখে মুখে ফিরছে মুস্তাফিজুর রহমানের নাম।

শনিবার (২৬ মার্চ) কলকাতার ইডেন গার্ডেনে কিউইদের বিপক্ষে ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বল করতে আসেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজ। প্রথম ৫টি বলে কোন সাফল্য না এলেও ওভারের শেষ বলটিতে দারুণ এক স্লোয়ার দিয়ে ব্যক্তিগত ৭ রানে কিউই ওপেনার নিকোলাসের অফ স্ট্যাম্প উপড়ে ফেলেন তিনি। উল্লাসে মেতে ওঠেন ইডেন গার্ডেনে উপস্থিত সমর্থকরা।

এরপর কিউই শিবিরে নিজের দ্বিতীয় ওভারে বল করতে এসে দ্বিতীয় আঘাত হানেন মুস্তাফিজ। এই ওভারেও শেষ বলে তার স্লোয়ারে সম্পূর্ণ পরাস্ত হন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। সরাসরি বোল্ড আউট হয়ে ফিরে যান ব্যক্তিগত ৪২ রানে।

মুস্তাফিজ তৃতীয় সাফল্যের দেখা পান, ১৮তম ওভারে এসে। ওই ওভারে তার পঞ্চম ডেলিভারিটি ছিল স্লোয়ার অফ কাটার যা গ্র্যান্ট এলিয়ট মিড অন দিয়ে উঠিয়ে মারলে দৌঁড়ে এসে তা তালুবন্দি করেন শুভাগত হোম।

তিন ওভারে তিন উইকেটের পর মুস্তাফিজ শেষ দুটি উইকেটের দেখা পান ২০তম ওভারে এসে। ওভারের চতুর্থ বলে মিচেল স্যান্টনারকে বোল্ড আউটের পরের বলেই নাথান ম্যাককালামের স্ট্যাম্পে চিড় ধরিয়ে তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম পাঁচ উইকেট।

এ সময় মুস্তাফিজ! মু্স্তাফিজ! চিৎকারে মুখরিত হয়ে ওঠে গ্যালারি।

এর আগে ছোট্ট ক্যারিয়ারে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে দুই বার ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একবার ৫ উইকেটের দেখা পান মুস্তাফিজ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :