দুপুর ২:৫০, মঙ্গলবার, ২৩শে মে, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / ৪৯০ উপজেলায় হবে মিনি স্টেডিয়াম
৪৯০ উপজেলায় হবে মিনি স্টেডিয়াম
ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৬

ফুটবলসহ সব খেলায় দেশকে এগিয়ে নিতে ৪৯০টি উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। আগামীবছর (২০১৭ সাল) থেকে কাজ শুরু হবে। ফুটবলকে ব্র্যান্ডিং করতে হলে ক্রিকেটের মতো বড় ধরনের পৃষ্ঠপোষকতার প্রয়োজন বলেও জানিয়েছেন তিনি।
সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ফুটবলার বাছাইয়ের প্রথম রিয়েলিটি শো, ‘লাভ ফুটবল, প্লে ফুটবল’ এর অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা জানান। রেডি-বাংলার শিশু পরিবারের উদ্যোগে, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় এ শো আয়োজন করা হবে। জয় বলেন, খেলার মাধ্যমে একটি দেশকে বিশ্বের কাছে ব্র্যান্ডিং করা হয়। পৃষ্ঠপোষকতার কারণে বাংলাদেশের ক্রিকেট এগিয়ে গেছে। বাংলাদেশের প্রাণের খেলা ফুটবলকে এগিয়ে নিতেও পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন।
তিনি বলেন, শুধু ফুটবল নয়, এদেশের সব খেলোয়াড়ের পাশে থাকা উচিত। কারণ একজন খেলোয়াড়ের অর্জন দেশ ও জাতির জন্য। বাঙালির জাতির জীবনে যা কিছু অর্জন তা হলো খেলাধুলা। পৃথিবীর যে স্থানে যে কোনো ধরনের খেলা রয়েছে সেখানে আমাদের ছেলেমেয়েদের রাখতে হবে।
বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, এ শোয়ের মাধ্যমে আগামী কয়েকবছরে বাংলাদেশে প্রচুর খেলোয়াড় তৈরি হবে। এসব খেলোয়াড় বিশ্বকাপ খেলবে। বাংলাদেশকে বিশ্বের কাছে ব্র্যান্ডিং করবে। যেকোনো ধরনের সহযোগিতা তাদের দেওয়া হবে। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদের সচিব নারায়ণ চন্দ্র দেবনাথ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মঞ্জুর মোর্শেদ।
সংগঠনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম সোহাগের সঞ্চালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন এআরকে ইমপেক্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন শিকদার।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :