সকাল ৬:৩০, শুক্রবার, ২৮শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / সৌম্যের মুখে কেক মেখে দিলেন মাশরাফি!
সৌম্যের মুখে কেক মেখে দিলেন মাশরাফি!
ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৬

প্রতিটি সাফল্যের পেছনেই একটা গল্প থাকে। ক্রীড়াঙ্গনে সাফল্য আসে দলীয় সমন্বয় আর সতীর্থদের মধ্যে দারুন বোঝাপড়ার কারণে। ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পর ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি জানিয়েছিলেন, ‘ড্রেসিং রূম ঠাণ্ডা রাখতে পেরেছিলেন বলেই এমন সাফল্য।’
গত একটি বছর বাংলাদেশের সাফল্যের মূলেও একই কারণ। ড্রেসিংরূমের একতা। দলটাকে যেন একটি পরিবার হিসেবেই গড়ে তুলেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। জয়-পরাজয় কোন কিছুই যেন এই পরিবারের সদস্যদের বন্ধনে কোন ছিড় ধরাতে পারবে না। তেমনই এক দৃশ্য দেখা গেলো ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পর দিনই।
এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ভারতের কাছে পরাজয়ের পর যেখানে সবাই বিষন্ন হয়ে ওঠার কথা, সেখানে দলটিকে উজ্জীবিত করে তুলতে দারুন একটি পদ্ধতি অবলম্বন করলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। ওইদিন যদি বাংলাদেশ জিততে পারতো, তাহলে ওপেনার সৌম্য সরকারের ২৩তম জন্মদিনটা হতে পারতো আরও আনন্দঘণ, আরও উৎসব মুখর।
তবুও মাশরাফিরা উৎসব করতে জানেন। ভারতকে হারাতে পটারেনি তো কী হয়েছে, জন্মদিনে উৎসব করতে তো আর বাধা নেই। যে কারণে ড্রেসিংরূমে সতীর্থদের নিয়ে জন্মদিনটা মাশরাফি পালন করলেন বেশ ঘটা করেই। সতীর্থদের নিয়ে সৌম্যর জন্মদিনের কেক কাটলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক। শুধু তাই নয়, সৌম্যর মুখে কেকও মেখে দিলেন মাশরাফি।
জন্মদিন পালনের সেই ছবিগুলো সৌম্য সরকার শেয়ার করেছেন নিজের ফেসবুজ পেজে। যদিও কেকটা উপহার হিসেবে এসেছে স্পন্সর প্রতিষ্ঠান রবির পক্ষ থেকে। ফেসবুকে ছবি শেয়ার করে সৌম্য সকার লিখেছেন, ‘এটা আমার জন্য গ্রেট এক সারপ্রাইজ। সতীর্থ এবং রবিকে এ জন্য ধন্যবাদ। এটা আসলে একটি দল নয় শুধু, এটা একটা পরিবারও বটে। একই সঙ্গে ধন্যবাদ আমার সকল বন্ধু এবং শুভাকাংখিদের। অবশ্যই সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :