সন্ধ্যা ৬:৪৭, রবিবার, ৩০শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ / সতীর্থদের ভালোবাসায় সিক্ত বাংলাদেশ অধিনায়ক
সতীর্থদের ভালোবাসায় সিক্ত বাংলাদেশ অধিনায়ক
ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৬

মেহেদি হাসান মিরাজের রেকর্ড গড়ার মুহূর্ত সতীর্থরা রাঙিয়েছেন দারুণ উদযাপনে। সতীর্থদের কাছ থেকে প্রাণখোলা ভালোবাসা পেয়ে আপ্লুত বাংলাদেশ অধিনায়ক। যুব ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারের রেকর্ড এখন মিরাজের। মঙ্গলবার কক্সবাজারে নামিবিয়াকে হারানোর ম্যাচে ২ উইকেট নিয়ে ছাড়িয়ে গেছেন পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিমের রেকর্ড।
নামিবিয়ার শেষ উইকেটটি নিয়ে যুব ওয়ানডেতে উইকেটের চূড়ায় পা রাখেন মিরাজ। সতীর্থরা তখন আক্ষরিক অর্থেই চূড়ায় তুলে ধরেন অধিনায়ককে। নাজমুল হোসেন শান্ত ছুটে এসে কাধে তুলে নেন প্রিয় বন্ধুকে। যোগ দেন সতীর্থরাও। সবাই মিলে ওপরে তুলে ধরেন মিরাজকে। জড়িয়ে ধরা, পিঠ চাপড়ানোর পর্ব তো ছিলই। সতীর্থদের কাছ থেকে এমন অভিনন্দন পেয়ে উচ্ছ্বসিত মিরাজ। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েও লুকালেন না সেই খুশি।
“শেষ উইকেটটি যখন পাই, দলের সবাই আমাকে এসে জড়িয়ে ধরেছে। অভিনন্দন জানিয়েছে। আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। সবাই বলেছে দারুণ রেকর্ড করেছিস, বিশেষ করে শান্ত অনেক রোমাঞ্চিত ছিল।”
যুব ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি রান ও উইকেট, দুটিতেই শীর্ষে এখন বাংলাদেশের নাম। আগের ম্যাচে রানের রেকর্ডটি নিজের করে নিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। সেদিন রেকর্ড গড়ার সময় শান্তর সঙ্গে উইকেট ছিলেন মিরাজ, বন্ধুর রেকর্ড উদযাপনে তার উচ্ছ্বাসটাই ছিল বেশি। এবার মিরাজের রেকর্ডে আলাদা করে চোখে পড়ল শান্তর খুশি। শুধু রেকর্ড উদযাপনে নয়, নামিবিয়ার ম্যাচেই রেকর্ডটি গড়ে ফেলায় শান্তর পরামর্শও কাজে লেগেছে মিরাজের।
“আমি রেকর্ডটা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী ছিলাম যে আজকেই হবে। তবে ইচ্ছে করলেই তো সব হয় না। বরং বেশি চেষ্টা করলে উল্টো ফল হয়। শান্তও এই কথাটি আমাকে বলছিল যে ‘রেকর্ডের কথা মাথায় রাখলে কিন্তু উইকেট একটিও পাবি না, নরম্যাল বোলিংটা কলেই উইকেট পাবি’। ওর কথাটা আমার কাজে লেগেছে। নিজের বোলিংটা করে গেছি আমি।”



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :