দুপুর ২:৪২, বৃহস্পতিবার, ২৫শে মে, ২০১৭ ইং
/ এশিয়া কাপ / মুস্তাফিজকে সামলাতে কোহলিদের আলাদা প্রস্তুতি
মুস্তাফিজকে সামলাতে কোহলিদের আলাদা প্রস্তুতি
ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৬

বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানকে এত সহজে ভুলবেন কী করে বিরাট কোহলি! ভারতকে যেভাবে নাকানি-চুবানি খাইয়েছিলেন বাংলাদেশের তরুন পেস সেনসেশন- সেই ঘটনার পর এখনও তো এক বছর হয়নি। ভারতের বিপক্ষেই গত বছর জুনে অভিষেক হয়েছিল মুস্তাফিজের। তার হাতেই ধরাশায়ী হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনি অ্যান্ড কোং। পুনরায় বাংলাদেশে আসার পর সেই মুস্তাফিজকেই স্মরণ করতে বাধ্য হলেন কোহলিরা। শুধু তাই নয়, এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুস্তাফিজকে সামলানোর সব প্রস্তুতি নিয়েই ঢাকায় এসেছে ভারত।
এশিয়া কাপের ১৩তম আসর শুরুর আগেরদিন (আজ) নিজেদের রণ পরিকল্পনা নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাজির হলেন উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাওয়া দুই দলের দুই অধিনায়ককে। সেখানেই বার বার উঠে আসছিল মুস্তাফিজ প্রসঙ্গ। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা যেমন, তেমনি ভারতের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দু’জনের মুখেই উঠে আসলো মুস্তাফিজের প্রশংসা।
অভিষেকে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে ১৩ উইকেট নিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। এর মধ্যে দু’বার করে নিয়েছেন পাঁচ উইকেট। সুতরাং, মুস্তাফিজকে মোকাবেলা করতে এবার আলাদা প্রস্তুতি নিয়েই ঢাকায় এসেছে ভারতীয় শিবির।
আগেরদিন নিয়মিত অধিনায়ক মহেদ্র সিং ধোনি হঠাৎ ইনজুরিতে পড়ায় বাংলাদেশের বিপক্ষে নেতৃত্ব দেবেন বিরাট কোহলি। এদিন সংবাদ সম্মেলনেও আসলেন তিনি। মুস্তাফিজকে প্রসঙ্গে ভারতের পোস্টারবয় বলেন, ‘মুস্তাফিজ সত্যিই খুব ভালো করছে। আমাদের বিপক্ষে খেলার সময় থেকে গত এক বছরে বাংলাদেশের হয়ে দারুণ বোলিং করেছে সে। ১৯ বছর বয়সী একটা ছেলেকে এভাবে বোলিং করতে দেখা ছিল রোমাঞ্চকর। ১৪০ কিমির আশেপাশে গতির সঙ্গে স্লোয়ার বল করছিল, আমাদের জন্যও সেটি ছিল ব্যতিক্রমী এক অভিজ্ঞতা। নতুন বলেও খুব ভালো স্লোয়ার এবং কাটার করছিল। খেলাটায় নতুন কিছু নিয়ে এসেছে মুস্তাফিজ, খেলাটাকে আরও ঝাঁঝালো করেছে। ক্রিকেটের জন্য এটা খুব ভালো।’
মুস্তাফিজকে মোকাবেলায় এবার ভারত আলাদা প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান কোহলি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মতো স্পিনিং কন্ডিশনে একজন পেসার যদি ৪-৫টা উইকেট নিতে পারে এবং ব্যাটসম্যানদের বিপদে ফেলতে পারে, খেলাটা তাতে আরও প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ হয়ে ওঠে। ব্যাটসম্যান হিসেবেও উত্তাপটা টের পাওয়া যায় যে, এই ছেলেটার আলাদা এক ধরণের স্কিল আছে। সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে আমাদেরকে। তাকে সামলানোর জন্য আলাদা কিছু করতে হবে। নিজের খেলাতেও তাতে আরও উন্নতি হয়। মুস্তাফিজকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। দারুণ বোলিং করে আসছে সে। অবশ্যই এই টুর্নামেন্টেও বাংলাদেশের জন্য সে হতে যাচ্ছে বড় একটি ফ্যাক্টর।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :