সকাল ১১:২৯, রবিবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ গলফ / পর্দা উঠলো বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের
পর্দা উঠলো বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের
ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৬

বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় এক বছর বিরতির পর ফের পর্দা উঠলো বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের। এটি টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় আসর। বুধবার সকালে কুর্মিটোলা গলফ কোর্সে ৩ লাখ মার্কিন ডলার প্রাইজমানির এই টুর্নামেন্টটির এবারের আসরের উদ্বোধন করা হয়। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা (জনসংযোগ) এবং মানবসম্পদ ও প্রশাসন বিভাগের প্রধান লে. কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুল ওয়াহেদ। বাংলাদেশর গলফার মো. ফরহাদ, সিঙ্গাপুরের কো ডেং শ্যান ১ নম্বর হোল থেকে টি অফ করলে টুর্নামেন্টে দিনের প্রথম সেশনের খেলা শুরু হয়। বেলা ১১টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত এ সেশনের খেলা চলবে। এরপর শুরু হবে দিনের দ্বিতীয় সেশনের খেলা।
প্রথম সেশনে বাংলাদেশের হয়ে আরও খেলবেন, মো. জীবন আলী, মো. মিলন আহমেদ, মো. আব্দুল মতিন, মো. সাইয়ুম ও কাওসার হোসেন। তবে, দেশ সেরা গলফার সিদ্দিকুর প্রথম দিনের খেলা শুরু করবেন দিনের দ্বিতীয় সেশনে। দুপুর ১২টা ২৫ মিনিটে ৮ নম্বর হোল থেকে এবারের টুর্নামেন্ট শুরু করবেন তিনি।
বিশ্বের ৩৫টি দেশের ১৩৮ জন গলফার অংশ নেবেন এশিয়ান ট্যুরের এই আসরে। গত আসরের চ্যাম্পিয়ন সিঙ্গাপুরের গলফার মারদান মামত এবার আসতে পারেননি বাবার অসুস্থতার কারণে। সিদ্দিকুর রহমানসহ বাংলাদেশের মোট ৩১ জন গলফার অংশ নেবেন এ আসরে। গলফে বড় আয়োজন এশিয়ান ট্যুর ঘিরে ক্রীড়ামোদীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের প্রথম আসরে বাংলাদেশের গলফাররা সুবিধা করতে না পারলেও এবার শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখছেন। এশিয়ান ট্যুরের দুই শিরোপা জয়ী সিদ্দিকুর রহমান তৃতীয় শিরোপাটা দেশের মাটিতেই জিততে চান।
মঙ্গলবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘সত্যিই আমি আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছি। দেশের মাটিতে দ্বিতীয়বারের মতো এশিয়ান ট্যুরের টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া অনেক বড় বিষয়। ঘরের কোর্সে খেলার বিষয়টি আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা দেবে। গত আসরে শিরোপা জিততেই হবে, এমন ভাবনা থেকেই বাড়তি চাপ নিয়ে ফেলেছিলাম। তাই এবার অনেকটা রিল্যাক্স আছি। আমি শুধু আমার খেলাটা উপভোগ করব।’
স্থানীয় গলফারদের মধ্যে সেরা দুলাল হোসেন। মঙ্গলবার প্রো-অ্যাম ওয়ার্ম আপ ম্যাচে তার দল সিদ্দিকুরের দলকে হারিয়ে দিয়েছে। এই কোর্সে ‘১৬ আন্ডার পার’ খেলার রেকর্ড আছে দুলালের। গত আসরে যেখানে ‘১৪ আন্ডার পার’ খেলে শিরোপা জিতেছিলেন মামত। তাই এবার শিরোপা জয়ে আশাবাদী দুলাল।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তারকা গলফার ক্যাসে ওটুলও বসুন্ধরা গলফের শিরোপা জিততে চান। তিনি বলেছেন, ‘ভালোই লাগছে আমার। আমি সব শেষ মায়ানমার ওপেনে সেরা পাঁচের মধ্যে ছিলাম। এখানে আরও ভালো করতে চাই। যদিও আমি কিছুটা ক্লান্ত, তারপরেও চেষ্টা করব নিজের সেরা পারফর্মটা করে দেখাতে।’
শিরোপায় দৃষ্টি কোরিয়ান গলফার ওয়াউকিউন চ্যাংয়েরও। তিনি বলেন, ‘আমার সময়টা এখন ভালো যাচ্ছে। এখানেও ভালো করার ব্যাপারে আমি আশাবাদী।’
এর আগে গেল বছরের মে মাসে বসুন্ধরা বাংলাদেশ ওপেনের প্রথম আসর বসেছিল। ওই আসরেও অংশ নিয়েছিলেন বাংলাদেশের শীর্ষ গলফার সিদ্দিকুর। তবে দেশবাসীর প্রত্যাশানুযায়ী ফল করতে পারেননি তিনি। চূড়ান্ত পর্বের খেলায় পারের চাইতে ৪ শট বেশি খেলে যুগ্মভাবে ৩৮তম হয়েই তাকে শেষ করতে হয় প্রথম আসর। আর পারের চাইতে ১৪ শট কম খেলে ওই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন সিঙ্গাপুরের মারদান মামাত।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :